চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নতুন টি-টুয়েন্টি সিরিজে খেলবেন শচীন-লারা

‘রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজে’ থাকছেন ব্রেট লি-ক্যালিস-মুরালিধরন-রোডসরা

ক্রিকেট সমর্থকদের জন্য সুখবর। বাইশ গজের দুই কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার ও ব্রায়ান লারা আরও একবার মাঠে নামছেন। টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্ট খেলবেন দুই সাবেক সুপারস্টার। আগামী বছর ভারতে অনুষ্ঠিত ‘রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজে’ অংশ নিচ্ছেন তারা।

অস্ট্রেলিয়া, সাউথ আফ্রিকা, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ভারতের সাবেক ক্রিকেটারদের নিয়ে এই ওয়ার্ল্ড সিরিজ অনুষ্ঠিত হবে। শুধু শচীন-লারাই নন, মাস্টারব্লাস্টারের সাবেক ওপেনিং পার্টনার বীরেন্দ্র শেবাগও অংশ নিচ্ছেন টুর্নামেন্টে। থাকছেন ব্রেট লি, জ্যাক ক্যালিস, মুত্তিয়া মুরালিধরন, তিলকারত্নে দিলশান, শিবনারায়ণ চন্দরপল ও জন্টি রোডসের মতো বিশ্বখ্যাত সাবেকরা।

বিজ্ঞাপন

ইএসপিএন-ক্রিকইনফো নিশ্চিত করেছে, আগামী বছর ২-১৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে এই রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজ। এতে অংশ নিতে যাওয়া দলগুলো ইন্ডিয়া লিজেন্ডস, অস্ট্রেলিয়া লিজেন্ডস, সাউথ আফ্রিকা লিজেন্ডস, শ্রীলঙ্কা লিজেন্ডস ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ লিজেন্ডস।

৪৬ বছরের শচীন আজও বিশ্বের সর্বকালের সর্বোচ্চ ওয়ানডে ও টেস্ট রান সংগ্রাহক। ৩৪,০০০-এর ওপর রান ও ১০০টি সেঞ্চুরির মালিক ভারতীয় কিংবদন্তি। ২০০৮ সালে ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি লারার টেস্ট ক্রিকেটে করা সর্বোচ্চ রানের (১১,৯৫৩) রেকর্ড ভেঙে দেন লিটলমাস্টার। যদিও ক্রিকেটের দীর্ঘতম ফরম্যাটে লারার অপরাজিত ৪০০ রানের রেকর্ড আজও অক্ষত। যা ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে অ্যান্টিগাতে ২০০৪ সালে করেছিলেন ক্রিকেটের বরপুত্র।

বিজ্ঞাপন

২০১৩তে অবসরের পর এই নিয়ে তৃতীয়বার ব্যাট হাতে মাঠে নামবেন শচীন। ২০১৪তে অবশিষ্ট বিশ্ব একাদশের বিপক্ষে এমসিসির হয়ে লর্ডসে খেলেছেন। এরপর ২০১৫তে যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত তিনটি প্রদর্শনী টি-টুয়েন্টি ম্যাচে খেলেন শচীন।

সিরিজ আয়োজনে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) থেকে অনুমতি পেয়েছে আয়োজকরা। তাছাড়া এরইমধ্যে ১১০ জন সাবেক ক্রিকেটার টুর্নামেন্টে নিজেদের খেলার নিশ্চিত করেছেন বলেও জানাচ্ছে ক্রিকইনফো।

বিশ্বজুড়ে হওয়া ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগগুলোর আদলেই হবে এই টুর্নামেন্ট এবং দলগুলো কেবল টেস্ট খেলুড়ে দলগুলোর ভেতরই রাখা হয়েছে। যদিও বাংলাদেশ-পাকিস্তান থেকে কোনো দল সেখানে থাকছে না।

এই সিরিজ আয়োজনের দায়িত্বে থাকছে একটি পেশাদার ম্যানেজমেন্ট গ্রুপ এবং মহারাষ্ট্র সরকারের রোড সেফটি সেল। তাদের পরিকল্পনার অংশ হল পুরো ভারত জুড়ে ১০ বছর ধরে এই সিরিজ আয়োজন করা, যা শুরু হবে মুম্বাই থেকে।

যদিও খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিকের ব্যাপারে ফ্র্যাঞ্চাইজিরাই দেখভাল করবে এবং টুর্নামেন্ট থেকে প্রাপ্ত অর্থ ‘রোড সেফটি সেল’এ ব্যবহার করবে। কারণ এরমধ্যে দিয়েই তুলে ধরা হবে সড়ক দুর্ঘটনায় ভারত কীভাবে শীর্ষে রয়েছে।

Bellow Post-Green View