চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জার্মানির দুর্দশার জন্য দায়ী গার্দিওলা

বিশ্বকাপের প্রথমপর্ব থেকেই বিদায়। ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি বিশ্বকাপ পরবর্তী আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচগুলোতেও। চলতি উয়েফা নেশনস লিগেও করুণদশা। একের পর এক হারে জার্মানি চলে গেছে অবনমনে।

কোচ জোয়াকিম লো কিংবা দলের খেলোয়াড়রা নয়, জার্মানির এই দুর্দশার জন্য দায়ী আসলে পেপ গার্দিওলা। দেশটির সাবেক ডিফেন্ডার হ্যান্স-পিটার ব্রিগেলের দাবি অন্তত এমনটাই। গার্দিওলার দর্শন জার্মান জাতীয় দলে নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে বলেও মত তার।

২০১৩-১৬ পর্যন্ত জার্মানির কুলীন ক্লাব বায়ার্ন মিউনিখের কোচ ছিলেন গার্দিওলা। সেই সময় বুন্দেসলিগা ক্লাবটির উপর তার পাসিং এবং বল দখল-ভিত্তিক দর্শন প্রয়োগ করেছিলেন তিনি। যদিও এই দর্শন দিয়েই বায়ার্নকে তিনটি লিগ শিরোপা জিতিয়েছেন। গার্দিওলার সময়ে দুইবার জার্মান কাপ, একবার করে উয়েফা সুপার কাপ ও ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা জেতে বায়ার্ন।

এত সাফল্য সত্ত্বেও ব্রিগেল মনে করেন, গার্দিওলার দর্শন জার্মান ফুটবলের মানসিকতাই বদলে দিয়েছে এবং খেলোয়াড়রা মনে করছে ম্যাচ জেতার জন্য তাদের বলের দখল রাখতেই হবে।

Advertisement

‘আমাদের মন থেকে একটা খুব সহজ নীতি পালিয়ে গেছে; সেটা হল- খেলায় বল দখলের চেয়ে ফলাফলটা অনেকবেশি জরুরি। কিন্তু গার্দিওলা বায়ার্নে আসার পর থেকে অনেককিছু বদলে গেছে। আমাদের এই বিভ্রমে ধরেছে যে, ম্যাচ জেতার জন্য ৭৫% বল দখলে রাখার প্রয়োজন। কিন্তু বল দখলে রাখাই সবসময় ফলাফল নির্ধারণ করে না।’ ব্রিগেলের মন্তব্য।

নিজের বক্তব্যের পক্ষে যুক্তিও দিয়েছেন ব্রিগেল, ‘সাম্প্রতিক ইতিহাসের দিকে তাকান। বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স দলকেই দেখেন। তারা দেখিয়েছে, জেতার জন্য সবসময় বল দখলে রাখার দরকার হয় না, বল ছেড়েও জেতা যায়। তারা প্রতি ম্যাচে ৫০ শতাংশের কম বল দখলে রেখেও জিতেছে।’

দলের ডাগআউটে গার্দিওলা ছিলেন না, তবু লো’র অধীনেও পাসিং আর বল দখলকে অগ্রাধিকার দিচ্ছেন জার্মান ফুটবলাররা। বিশ্বকাপসহ শেষ ছয়টি ম্যাচের প্রতিটিতেই প্রতিপক্ষের চেয়ে বেশি সময় বল দখলে রেখেছেন ক্রুজ-মুলাররা। এরমধ্যে বিশ্বকাপে সাউথ কোরিয়ার কাছে হারা ম্যাচেও ৭৪ শতাংশ বল দখলে ছিল তাদের। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি।

গার্দিওলা দর্শনে কোনভাবেই আর সাফল্য পাচ্ছে না জার্মানি। উয়েফা নেশনস লিগে ইতিমধ্যেই অবনমনে চলে গেছে দলটি। মানে, পরের বার তাদের খেলতে হবে দ্বিতীয় সারিতে থেকে। বিশ্বকাপ ব্যর্থতার পর নেশনস লিগেও টানা তিন ম্যাচে জিততে পারেনি জার্মানরা।

নেশনস লিগে এখন পর্যন্ত একটি ম্যাচ জিতেছে জার্মানি। রাশিয়ার বিপক্ষে ৩-০ গোলে জিতেছিল লো’র দল। সোমবার রাতে নেশনস লিগে তাদের প্রতিপক্ষ নিজেদের নতুন করে ফিরে পাওয়া নেদারল্যান্ডস। আগের ম্যাচেই যারা ২-০ গোলে হারিয়েছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সকে।