চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জলবায়ু পরিবর্তন ঠেকানোর দরকার নেই: ট্রাম্প

জলবায়ুর পরিবর্তন রোধের প্রয়োজনীয়তা আবারও প্রত্যাখ্যান করলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের পরিষ্কার বায়ু এবং পানি আছে, তাই জলবায়ুর পরিবর্তন ঠেকানোর দরকার নেই।

জাপানে জি২০ শীর্ষ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্ট জানায়, এর আগেও তিনি জলবায়ু পরিবর্তকে ‘ধাপ্পাবাজি’ উল্লেখ করেন। এই সমস্যাকে আবহওয়ার পরিবর্তন উল্লেখ করে তিনি তা প্রত্যাখ্যান করেন।

জি২০ সম্মেলনে বক্তব্যকালে ডোনাল্ড ট্রাম্প অভিযোগ করে বলেন, বাতাসের শক্তি ‘কাজ করে না’, কারণ এতে অনেক ভর্তুকি দিতে হয়।

তিনি বলেন, আমি পরিষ্কার পানি ও বায়ু আছে, যেমনটি আগে ছিল। কিন্তু আমি এসবের অসাধারণ ক্ষমতার বলিদান করতে চাই না। এগুলো তৈরি করতে আমাদের অনেক সময় লেগেছে এবং আমি এগুলো উন্নত ও পুনরুজ্জীবিত করেছি।

ট্রাম্প বলেন, অন্যান্য দেশ যা করছে আমি নিশ্চিত নই তাদের সঙ্গে একমত হতে পারবো কিনা, তারা অনেক শক্তি অপচয় করছে। আমি একটি প্লান্টের শক্তি বৃদ্ধির প্রসঙ্গে এ কথা বলছি।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, বায়ুমিলের (উইন্ডমিল) সঙ্গে এটি সবসময় কাজ করে না। বাতাস বন্ধ হয়ে গেলেই প্লান্ট আর কাজ করে না। সৌর বিদ্যুত যথেষ্ট শক্তিশালী না হওয়ায় তার সাহায্যেও এটি সবসময় কাজ করে না; উপরন্তু সৌর বিদ্যুতের অনেক অংশ বাতাসে মিশে যেতে চায় এবং অনেক সমস্যার সৃষ্টি করে।
ট্রাম্প বলেন, ভর্তুকি ছাড়া অধিকাংশ স্থানে বায়ু কাজ করে না এবং এরজন্য যুক্তরাষ্ট্রকে ব্যাপক পরিমাণে ভর্তুকি দিতে হচ্ছে। আমি এসব পছন্দ করি না। বিষয়টি অপছন্দের কথা এসময় দুইবার উচ্চারণ করেন তিনি।
প্যারিস জলবায়ু চুক্তি থেকে নিজেদের প্রত্যাহারের পক্ষেও কথা বলেন তিনি। জলবায়ু পরিবর্তনের সমস্যা তিনি অস্বীকার করেননি বলে জানান। তবে তার অভিযোগ ছিল, বৈশ্বিক উষ্ণতার ওপর ব্যবস্থা নেয়া যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতিকে প্রভাবিত করবে।
শেয়ার করুন: