চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কার্তিক সিকদার হত্যা: দণ্ডিত তিনজনকে আত্মসমর্পনের নির্দেশ

ফরিদপুরে আলোচিত কার্তিক সিকদার হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে জমিনে থাকা তিনজনকে আত্মসমর্পনের নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত তিনজনকে দেয়া হাইকোর্টের জামিন স্থগিত করে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন ছয় বিচারপতির আপিল বেঞ্চ মঙ্গলবার এই আদেশ দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত তিনজন হলেন ইমারত মোল্লা, কালাম মোল্লা ও সিদ্দিক মোল্লা। আদালতে আজ  রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

আলোচিত এই মামলার নথিপত্র থেকে জানা যায়, ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার চর যশোরদী ইউনিয়নের মেঘারকান্দি গ্রামের কার্তিক সিকদারের অপ্রাপ্তবয়স্ক কন্যাকে অপহরণ ও ধর্মান্তরিত করে বিয়ে করেন ইউনিয়ন যুবদলের তৎকালীন সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজ মোল্লা। পরবর্তীতে বাড়িঘর দখল করাসহ কার্তিক সিকদারের কাছ থেকে বিভিন্ন দফায় চাঁদা আদায় করতে শুরু করেন সিরাজ মোল্লা। একপর্যায়ে ২০০৬ সালের ১ জুন রাতে সিরাজ ও তাঁর সহযোগীরা কার্তিক সিকদারকে ধরে নিয়ে নির্যাতন করে ফেলে রেখে যান। এমনকি আহত কার্তিককে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে যেতে বাধা দেওয়া হয়। পরদিন হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান কার্তিক। পরবর্তীতে সিরাজ মোল্লা ও তাঁর সহযোগীরা কার্তিকের লাশ সৎকার করতে বাধা দিলে সে লাস মাটি চাপা দেয়া হয়। আলোচিত ওই ঘটনার পর ২০০৭ সালের ৩ মার্চ নিহত কার্তিক সিকদারের স্ত্রী মিলনী সিকদার ফরিদপুরের মুখ্য বিচারিক হাকিমের আদালতে সিরাজ মোল্লা ও তাঁর সহযোগীদের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

মামলার বিচার শেষে ২০১৯ সালের ২২ জুন ফরিদপুরের বিশেষ দায়রা জজ আদালত কার্তিক সিকদার হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করেন। সে রায়ে সিরাজ মোল্লা ও তাঁর সহযোগী নয়া মোল্লা, ইমারত মোল্লা, কালাম মোল্লা, সিদ্দিক মোল্লাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন আদালত। পরবর্তীতে দন্ডপ্রাপ্তরা রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্ট আপিল করে জামিন চাইলে আদালত ইমারত মোল্লা, কালাম মোল্লা ও সিদ্দিক মোল্লাকে জামিন দেয়। জামিন পেয়ে এরা কারাগার থেকে বেরিয়ে যান। একপর্যায়ে হাইকোর্টের দেয়া জামিন স্থগিত চেয়ে দণ্ডিত তিনজনের সিকিউর অ্যারেস্ট চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ আপিল বিভাগে আবেদন করেন। সে আবেদনের শুনানি নিয়ে আজ আপিল বিভাগ হাইকোর্টের দেয়া জামিন স্থগিত করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত তিনজনকে আত্মসমর্পনের নির্দেশ দেন।