চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনাভাইরাস: জুলাইতে ভ্যাকসিনের তৃতীয় ধাপের ট্রায়াল

করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় চীনের উদ্ভাবিত ভ্যাকসিনের তৃতীয় ধাপের ট্রায়াল হবে আগামী জুলাই মাসে। ওই ট্রায়ালে বাংলাদেশও চীনের সাথে সম্পৃক্ত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার মহাখালির স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে ঢাকায় আসা চীনের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দলের সাথে বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

তৃতীয় ধাপে গিয়ে দুই দল মানুষের প্রয়োজন হয়- একদলকে ভ্যাকসিন দেয়া হয় এবং অন্যদলকে দেয়া হয় না। এবার তাদের মধ্যে দেখা হয়- না দেয়াদের তুলনায় ভ্যাকসিন দেয়া মানুষ সংক্রমণ থেকে দূরে থাকতে পারছেন কিনা।

বিজ্ঞাপন

চীনে সংক্রমণ কমে যাওয়ায় তিয়ানজিন-ভিত্তিক ক্যানসিনো বায়োলজিকস ইনকর্পোরেশন এবং বেইজিং-ভিত্তিক সিনোভাক বায়োটেক লিমিটেডের মতো কয়েকটি চীনা ওষুধ প্রস্তুতকারক কোম্পানি অন্যান্য দেশে তৃতীয় ধাপের ট্রায়াল পরিচালনার বিকল্প অনুসরণ করছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও যুক্তরাষ্ট্রের সিডিসি বলছে, একটি কার্যকর ভ্যাকসিনই পারে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এবং মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাপন ফিরিয়ে দিতে। যদিও একটি কার্যকর ভ্যাকসিন তৈরি করতে সাধারণত কয়েক বছর সময় লাগে এবং এখন পর্যন্ত এইচআইভির মতো অনেক রোগেরই ভ্যাকসিন আবিষ্কার করা যায়নি।

বৈঠকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদসহ করোনা প্রতিরোধে জাতীয় টাক্সফোস এর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

করোনাভাইরাসে বিশ্বের ২১৩টি দেশ ও অঞ্চলে এখন পর্যন্ত ৭২ লাখ ১১ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে মারা গেছেন ৪ লাখ ৮ হাজারের বেশি মানুষ। তবে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৩৫ লাখ ৫৫ হাজারের বেশি মানুষ।