চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কফিনে বিয়ের ফটোগ্রাফি

কয়েকদিন ধরেই অনলাইনে বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছে সিঙ্গাপুরের এক যুগল। তারা নিজেদের বিয়ের ছবি তুলেছেন কফিনের সঙ্গে।

জেনি টে ও ডারেন চেঙ মনে করেন, মৃত্যুই জীবনের কেন্দ্রীয় এবং অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অংশ। তাই তারা আগামী অক্টোবরে তাদের বিয়েকে সামনে রেখে ছবিগুলো তোলেন। তারা দুজনই মৃতদেহ সৎকারের কাজ করেন।

বিজ্ঞাপন

ফটোশুটটি মূলত আমাদের কাজ থেকেই অনুপ্রাণিত- বলছিলেন টে।

তিনি বলেন, বিয়ের ছবিতে মানুষ এমন কিছু জায়গা বেছে নিতে চায় যা তাদেরকে স্মৃতিকাতর করে। আর আমাদের জন্য সেই জায়গাটা হলো আমাদের কর্মক্ষেত্র। চাকরি আমাদের দুজনের জীবনের অনেকটা অংশ জুড়ে থাকে তাই আমরা আমাদের বিয়ের ফটোশুটকে এভাবে সাজাতে চেয়েছি।

তবে কফিনের সাথে ছবি তোলার এটাই একমাত্র কারণ ছিলো না। বলছিলেন তিনি, মৃত্যু জীবনেরই অংশ। এটাকে জীবনের নিষিদ্ধ বিষয় হিসেবে দেখার কোনো কারণ নেই।

বিজ্ঞাপন

টে এরই মধ্যে মৃত্যুর মুখোমুখি বিষয়ে একটি বাচ্চাদের বইও লিখে ফেলেছেন।

মৃত্যুকে তিনি জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ মনে করেন।

জনি টে বলেন, এশীয় সমাজের অনেকে মৃত্যুকে নেতিবাচকভাবে উপস্থাপন করেন, মানুষকে মৃত্যুর সম্পর্কে আরো মুক্ত করে তুলে মানুষের মন থেকে এই ট্যাবু দূর করতে সক্ষম হবো। 

কফিনে বসে বিয়ের এই ফটোশুটটি করা হয়েছিলো সিঙ্গাপুরের ওয়াটারওয়ে পার্কে। আমরা চেয়েছি আমাদের ফটোশুটটি যেন আকর্ষণীয় এবং অদ্ভূত হয়। তবে নিশ্চয়ই যেন সেটা বিমর্ষ না দেখায়। তাই এই পরিকল্পনাটা কাজে লাগা, বলছিলেন টে।

মানুষকে মোটেও ভয় দেখাতে চাননি তারা এবং সকলের বেশ ইতিবাচক প্রতিক্রিয়াই পাচ্ছেন বলেই জানান এই হবু দম্পতি।

Bellow Post-Green View