চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

এবার ট্রাম্পের ইউটিউব চ্যানেল স্থগিত

ফেইসবুক, টুইটারের পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ইউটিউব চ্যানেল ৭ দিনের জন্য স্থগিত করলো গুগলের ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম ইউটিউব।

মঙ্গলবার টুইটারে এক ঘোষণায় ইউটিউব এ তথ্য জানিয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে বিবিসি।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

ইউটিউবের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ‘নতুন করে সহিংসতার শঙ্কা থাকায়’ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের চ্যানেল তারা অন্তত এক সপ্তাহের জন্য স্থগিত রাখছে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট থেকে প্রকাশ করা সাম্প্রতিক একটি ভিডিও তাদের একটি নীতিমালা ভঙ্গ করেছে।

নিউইয়র্ক টাইমস লিখেছে, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ব্যাপক অনিয়মের ভুয়া অভিযোগ আনা হয়েছিল ট্রাম্পের কয়েকটি ভিডিওতে। তার ইউটিউব চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা প্রায় ২৮ লাখ।

ইউটিউব বলেছে, অন্তত সাত দিন ট্রাম্প তার চ্যানেলে নতুন কোনো ভিডিও আপলোড করতে পারবেন না। পাশাপাশি তার তোলা ভিডিওতে মন্তব্য করার সুযোগও অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ থাকবে।

বিজ্ঞাপন

বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জো বাইডেনের জয়ের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতির জন্য গত ৬ জানুয়ারি কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশন চলার মধ্যেই ট্রাম্পের আহ্বানে সাড়া দিয়ে তার সমর্থকরা ক্যাপিটাল ভবনে ঢুকে নজিরবিহীন সহিংসতা ঘটায়।

ট্রাম্প সমর্থকরা জানালা ভাঙচুর করে, পুলিশের সঙ্গে দাঙ্গায় জড়ায়। সংঘাতে নিহত হন পাঁচজন।

ক্যাপিটাল ভবনে হামলা চালানো রিপাবলিকান সমর্থকদের উদ্দেশে ট্রাম্প টুইট করার পর তার অ্যাকাউন্ট সাময়িকভাবে স্থগিত করে টুইটার ও ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ।

ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ পরে জানায়, প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব হস্তান্তর শেষ হওয়া পর্যন্ত অন্তত দুই সপ্তাহ ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট স্থগিতই থাকবে। ইনস্টাগ্রামও ট্রাম্পের অ্যাকাউন্টের ক্ষেত্রে একই সিদ্ধান্ত নেয়।

টুইটার কর্তৃপক্ষ মাঝে একবার ট্রাম্পকে তার অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করার সুযোগ দিলেও পরে জানায়, ‘সহিংসতায় উসকানির শঙ্কা’ থাকায় প্রেসিডেন্টের অ্যাকাউন্ট তারা স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দিচ্ছে।