চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Nagod

‘এক ফ্যাক্সে ইতিহাসের সেরা খেলোয়াড়ের বিদায় হতে পারে না’

Fresh Add Mobile
বিজ্ঞাপন

লিওনেল মেসিকে বার্সা ছাড়ার সিদ্ধান্ত আরও একবার ভেবে দেখার অনুরোধ জানিয়েছেন ক্লাবের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জর্ডি মেস্ত্রে। তার অনুরোধ, কেবল এক ব্যুরোফ্যাক্সের মাধ্যমে মেসির বিদায় ক্লাব ইতিহাসের জন্য হয়ে থাকবে কলঙ্কিত এক ঘটনা।

বিজ্ঞাপন

গত ২৫ আগস্ট ব্যুরোফ্যাক্সের মাধ্যমে বার্সা ছাড়তে চাওয়ার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেন মেসি। এরপর থেকে তাকে আটকে রাখার যতটা সম্ভব চেষ্টা, প্রয়োজনে আদালতের ভয় দেখাতেও ছাড়ছে না বার্সা।

এরপরও আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড যে ক্লাব ছাড়ার ব্যাপারে অটল তা স্পষ্ট হয়ে গেছে গত রোববার প্রাক-মৌসুম করোনা টেস্টে তার অংশ না নেয়ায়। এমনকি সোমবার মৌসুমের প্রথম অনুশীলনেও তার পা পড়েনি মাঠে। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমে খবর, তার জন্য বার্সার বেধে রাখা ৭০০ মিলিয়ন রিলিজ ক্লজের মেয়াদও শেষ হয়ে গেছে ২০১৯-২০ মৌসুম শেষেই।

রিলিজ ক্লজের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় ফ্রি এজেন্ট হয়ে ক্লাব ছাড়তে চাইছেন মেসি। এজন্য তাকে কিনতে এক ইউরোও খরচ করতে হবে না প্রত্যাশিত ক্লাবগুলোর। সবচেয়ে বেশি শোনা যাচ্ছে ম্যানসিটির নাম। লাইনে আছে পিএসজি, ইন্টার মিলানের মতো দলগুলোও।

বিজ্ঞাপন
Reneta April 2023

সবকিছুর বাইরে গিয়ে মেসি আরও একবার বার্সায় থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করবেন, রেডিও কাডেনা সারের কাছে এমন আশা প্রকাশ করেছেন জর্ডি মেস্ত্রে, ‘আমি শুধু এতটুকুই আশা করতে পারি, দুই পক্ষ আলোচনায় বসবে এবং নিজেদের সিদ্ধান্ত আরেকবার চিন্তা করবে।’

‘যখন উকিল আর ব্যুরোফ্যাক্স এলো তখনই পরিস্থিতি ঘোলাটে হয়ে গেছে। তার বিদায়টা হওয়া উচিৎ রাজকীয় এবং লিওর সেটা প্রাপ্যও। ক্লাব ইতিহাসের সেরা খেলোয়াড়ের কেবল এক ব্যুরোফ্যাক্সের মাধ্যমে বিদায় হতে পারে না।’

গত জুনেই মেসির রিলিজ ক্লজের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে, এমনও বিশ্বাস করেন না মেস্ত্রে, ‘খুব অবাক হয়েছি যে চুক্তিতে এমন অদ্ভুত শর্ত আছে। আমার কাছে খুব অদ্ভুত লেগেছে বিষয়টি। চুক্তি হবে সোজাসাপ্টা ২০১৬ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত, এবং সেটাই তার শেষ বছর। জুনের ১০ তারিখের মধ্যে বলে বিদায় নিতে হবে এমন শর্তও থাকা উচিৎ নয়।’

‘চুক্তিগতভাবে সিদ্ধান্ত নেবে বার্সা। ক্লাব ও লা লিগাও তাই বলছে। মেসিকে ১০ জুনের মধ্যে ছাড়তে হতো, কিন্তু সে সেটা করেনি।’

বিজ্ঞাপন
Bellow Post-Green View