চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

উল্কি দেখা গেলেই বিপদ!

রাগবি বিশ্বকাপ খেলতে আগামী বছর জাপানে যাবে অংশগ্রহণকারী দেশগুলো। কিন্তু দেশটি যাওয়ার আগে একটি বিষয়ে খেলোয়াড়দের কঠোরভাবে হুঁশিয়ার করে দেয়া হয়েছে। যাদের গায়ে উল্কি আঁকানো আছে, তারা যেন কোনভাবেই জাপানী দর্শকদের সামনে এ শিল্পকর্ম প্রদর্শন না করেন!

জাপানের কুখ্যাত সন্ত্রাসী সংগঠন ‘ইয়াকুজা’র লোকজনই মূলত গা ভর্তি করে উল্কি আঁকে। গোষ্ঠীটির ৬০ হাজারেরও বেশি কর্মীর সবার গায়েই আছে উল্কি। তাই উল্কিধারী ব্যক্তিদের ভিন্ন দৃষ্টিতেই দেখে দেশটির সাধারণ জনগণ। সেটি নেতিবাচক দৃষ্টিই। স্পা কিংবা গরমপানির গোসলখানাতেও প্রবেশাধিকার নিষিদ্ধ উল্কিধারী ব্যক্তিদের জন্য।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

রাগবি খেলোয়াড়দের তাই উল্কি লুকিয়ে মাঠে নামতে অনুরোধ করেছে আয়োজক কমিটি। সাঁতারের পুল কিংবা জিমে গেলেও দেয়া হয়েছে গায়ে আচ্ছাদন ব্যবহার করার পরামর্শ।

খেলোয়াড়রা এ অনুরোধ মানবেন এমনটা আশা করা গেলেও খানিকটা চাপা উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে ২০২০ টোকিও অলিম্পিক ঘিরে। কারণ সাঁতার কিংবা ডাইভিংয়ের খেলোয়াড়দের অনেকের গায়েই উল্কি আছে। কিন্তু এ দুই খেলায় কোনভাবেই গায়ে আচ্ছাদনি ব্যবহার করে পুলে নামা সম্ভব নয়। সেক্ষেত্রে প্রশ্ন উঠেছে, তাহলে কী পুলে নামা হবে না খেলোয়াড়দের?

সবদিক বিবেচনায় এমন ধরনের আইনে কিছুটা শিথিলতা আনছে জাপান সরকার। ২০১৬ সাল থেকে কিছু কিছু স্পাতে যেতে পারেন উল্কিধারী বিদেশীরা। তবে সেটা সীমিত আকারে। অলিম্পিক আসার আগেই এই নিয়মে আরও পরিবর্তন আনার কথাও ভাবছে দেশটির সরকার।

Bellow Post-Green View