চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ইংল্যান্ডকে পারলে ডানহাতে আরেকটা গোল দেন ম্যারাডোনা

পার করে দিলেন ৬০টি বসন্ত। ৩০ অক্টোবর কিংবদন্তি ডিয়েগো ম্যারাডোনার পা পড়তে যাচ্ছে ৬১তম বছরে। এই জন্মদিনে কী চান? এমন প্রশ্নে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়কের সেই চিরাচরিত কৌতুকভাব, ইংল্যান্ডকে ডানহাতে একটা গোল দিতে পারলে মন্দ হয় না!

কিসের ভিত্তিতে ম্যারাডোনা এমন কৌতুক করেছেন তার প্রেক্ষাপট কম-বেশি সব ফুটবলপ্রেমীরই জানা। ফকল্যান্ড যুদ্ধে ব্রিটিশদের কাছে হেরে তেঁতে থাকা আর্জেন্টাইনরা শোধটা তুলতে চেয়েছিল ১৯৮৬ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে। নকআউটে মুখোমুখি হয়ে যায় আর্জেন্টিনা-ইংল্যান্ড।

বিজ্ঞাপন

ম্যাচে ইংলিশ গোলরক্ষক পিটার শেলডনকে ফাঁকি দিয়ে বাঁ-হাত দিয়ে একটি গোল করেছিলেন ম্যারাডোনা। রেফারি ভেবেছিলেন মাথা দিয়েই বুঝি গোলটা করেছেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। ইংলিশ গোলরক্ষক আর ম্যানেজার ববি রবসনের কোনো অনুরোধই রাখেননি রেফারি।

বিজ্ঞাপন

একই ম্যাচে ৬ ইংলিশ খেলোয়াড়কে বোকা বানিয়ে আরেকটি অসাধারণ গোল করেছিলেন ম্যারাডোনা। যা ফুটবলবিশ্বে সর্বকালের অন্যতম সেরা গোল হিসেবে স্বীকৃত। পরে ফাইনালে ওয়েস্ট জার্মানিকে ৩-২ গোলে হারিয়ে দ্বিতীয় বিশ্বকাপ জেতে আলবিসেলেস্তেরা।

বিশ্বকাপ শেষে বামহাতে করা গোলটির নাম ‘হ্যান্ড অব গড’ দেন ম্যারাডোনা। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ফকল্যান্ড যুদ্ধের প্রতীকী প্রতিশোধ হিসেবে স্বীকৃতি দেন গোলটিকে। নিজের ৬০তম জন্মদিনে ফ্রান্স ফুটবলকে সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ওরকম আরেকটা গোল করতে চান।

‘আমি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আরেকটি গোলের স্বপ্ন দেখি, তবে এবার গোলটা হবে ডানহাতে!’