চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আরিয়ানকে গ্রেফতারের নেপথ্যে বিজেপি?

মাদক মামলায় আরিয়ান খানের নাম জড়ানোর কারণে আরও একবার বলিউডের সাথে মাদকের সম্পর্ক নিয়ে চলছে চর্চা। আজ আবার আদালতে তোলা হবে আরিয়ানকে। এসবের মাঝেই চাঞ্চল্যকর দাবি তুলেছেন মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী ও জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস পার্টির (এনসিপি) নেতা নবাব মালিক।

তার দাবি, এই ঘটনার পিছনে হাত রয়েছে বিজেপির। মহারাষ্ট্র ও বলিউড ইন্ডাস্ট্রির বদনাম করতেই এসব করছে এনসিবি।

নবাব মালিকের মতে, পুরো ঘটনাটিই সাজানো। বিজেপির আসল টার্গেট শাহরুখ। মহারাষ্ট্র সরকারকে ঝামেলায় ফেলতে এনসিবির সাথে হাত মিলিয়ে এই কাজ করেছে বিজেপি।

সংবাদ সম্মেলন করে নবাব দাবি করেছেন, অন্তত এক মাস আগে সাংবাদিকদের কাছে খবর ছিল যে শাহরুখ খানকে পরবর্তী নিশানা করা হবে।

বিজ্ঞাপন

আরিয়ানকে আটক করার পর তার সঙ্গে সেলফি তোলা অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির প্রসঙ্গও তোলেন তিনি। নবাব বলেন, ‘আটকের পর আরিয়ান খান এবং তার সঙ্গী আরবাজ মার্চেন্টকে যে দুজন ধরে এনেছেন, তারা এনসিবির কোনো কর্মকর্তা নয়। তাদের একজন বিজেপি কর্মী ও অন্যজন ব্যক্তিগত গোয়েন্দা।’

মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী নবাব মালিকের করা সব অভিযোগ ভিত্তিহীন দাবি করেছে ক্ষমতাসীন দল বিজেপি ও এনসিবি।

নবাব মালিকের অভিযোগের আগে কংগ্রেসের তরফ থেকেও দাবি করা হয়েছে, গুজরাটের মুন্দ্রা বন্দরে আটক ৩০০০ কিলোগ্রাম হিরোইন উদ্ধারের মামলা থেকে দেশবাসীর নজর ঘোরাতেই এনসিবি প্রমোদতরীতে অভিযান চালিয়ে আরিয়ান খানকে আটক করেছে। -হিন্দুস্তান টাইমস

বিজ্ঞাপন