চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা

জনস্বার্থের কথা বলে রিট করে শুনানির দিনে আদালতে উপস্থিত না থাকায় সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা (কস্ট) করেছেন হাইকোর্ট।

এই আইনজীবীর করা রিটটি খারিজ করে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সরদার মো. রাশেদ জাহাঙ্গীরের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ এই আদেশ দেন। এসময় আদালত বলেন, ‘কোর্ট-কাচারি নিয়ে ফাজলামো নাকি?। উনি মামলা করেই মিডিয়ায় বলে দেন  মামলা করা হয়েছে। কিন্তু শুনানির দিন উনি আর উপস্তিত থাকেন না। কয়েন দিন এই রিটটি কার্যতালিকা এলো। কিন্তু উনি অনুপস্থিত।’

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এর আগে সারা দেশে চলমান ‘সর্বাত্মক লকডাউন’ স্থগিতের পাশাপাশি সব অফিস খুলে দিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপের  নির্দেশনা চেয়ে গত ২৫ এপ্রিল রিটটি করেন আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ। এরপর গত ২ মে রিটটি শুনানির  কার্যতালিকায় এলে সেসময় রিটকারি আইনজীবীকে ভার্চুয়াল আদালতে দেখা যায়নি। তখন আদালত বিষয়টিতে ‘নট টুডে’ আদেশ দেন। আবার আজ রিটটি শুনানির কার্যতালিকায় এলে আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দকে ভার্চুয়াল আদালতে যুক্ত দেখা যায়নি। একপর্যায়ে হাইকোর্ট রিটটি খারিজ করে টিটকারি আইনজীবীকে ১০ হজার টাকা কস্ট (জরিমানা) করে আদেশ দেন। এসময় আদালতে আজ রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অরবিন্দু কুমার রায় ও বিপুল বাগমার।

গত বছর আদালত অবমাননার দায়ে সর্বোচ্চ আদালতের রায়ে তিন মাস সুপ্রিম কোর্টে আইন পেশা থেকে বিরত থাকতে হয়েছিল আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দকে। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন সাত বিচারপতির আপিল বেঞ্চের দেয়া ওই রায়ে ২৫ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছিল এই আইনজীবীকে।

বিজ্ঞাপন