চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Oikko

বর্ণবাদী আচরণের শিকার ভিনিসিয়াস প্রতিক্রিয়া জানালেন

Oikko SME

ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড ভিনিসিয়াস জুনিয়র তার সম্পর্কে করা বর্ণবাদী মন্তব্যের বিষয়ে নিজের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করা ভিডিও পোস্টে তিনি বলেন, ‘উদযাপনের চেয়ে আমার জেতার আকাঙ্ক্ষা, আমার হাসি এবং আমার চোখে ঝলকানি অনেক বড়।

Reneta June

‘আপনি এটা কল্পনাও করতে পারবেন না। আমি জেনোফোবিক এবং বর্ণবাদী মন্তব্যের শিকার হয়েছিলাম। কিন্তু এর কিছুই গতকাল থেকেই শুরু হয়নি।’

মায়োর্কার বিপক্ষে রিয়ালের ৪-১ ব্যবধানে জয়ের ম্যাচে গোল করার পর ভিনিসিয়াসের নেচে উদযাপনের সমালোচনা করেন স্প্যানিশ ফুটবল এজেন্টদের সভাপতি পেদ্রো ব্রাভো।

গত শুক্রবার একটি স্প্যানিশ সকার শোতে প্যানেলিস্ট হিসেবে উপস্থিত হয়ে দাবি করেন, ভিনিসিয়াস তার উদযাপনের সঙ্গে প্রতিপক্ষকে সম্মান করছেন না। একইসঙ্গে তার আচরণকে বানরের সাথে তুলনা করেন। তার এমন মন্তব্য দ্রুত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।

২২ বর্ষী ভিনিসিয়াস এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘ব্রাভোর সমালোচনা এটাই প্রথম নয়। এর আগেও নাকি রিয়াল ফুটবলারের বিষয়ে তার গোল উদযাপন নিয়ে বর্ণবাদী মন্তব্য করেছিলেন। একইসঙ্গে ভিনিসিয়াস অন্যান্য খেলোয়াড়দের নাম উল্লেখ করে বলেন যে তারাও গোল করার পর এভাবেই উদযাপন করে। একজন কৃষ্ণাঙ্গ ব্রাজিলিয়ান বিজয়ীর খুশিটা ইউরোপে।’

‘এক সপ্তাহ আগে তারা আমার নাচকে অপরাধ হিসেবে গণ্য করেছিল। যে নাচগুলো আমার নিজস্ব নয়। রোনালদিনহো, নেইমার, লুকাস পাকুয়েতা, গ্রিজম্যান, জোয়াও ফেলিক্স, ম্যাথিউস কুনহাও নেচেছে। নাচগুলো ব্রাজিলিয়ান ফাঙ্ক, সাম্বা শিল্পী, রেগেটন গায়ক এবং কালো আমেরিকানদের অন্তর্গত। বিশ্বে এসব নাচ উদযাপন সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্যের অংশ। এগুলোকে গ্রহণ করুন, সম্মান করুন। আমি নাচ থামাচ্ছি না।’

ভিনিসিয়াসকে নিয়ে করা বর্ণবাদী মন্তব্যের ব্যাপারে কিংবদন্তি ফুটবলার পেলের মতে, ফুটবল একটি আনন্দদায়ক বিষয় হওয়া উচিৎ। যেখানে বর্ণবাদের বিরুদ্ধে চলমান যুদ্ধের গুরুত্বের উপরও জোর দেয়া দরকার।

টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘ফুটবল মানে আনন্দ। এটা নাচের উপলক্ষ। সত্যিকারের পার্টি। যদিও বর্ণবাদ এখনও বিদ্যমান। বর্ণবাদ আমাদের আনন্দ পাওয়া থামাতে পারবে না। আমরা এভাবেই বর্ণবাদের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাব। এটা আমাদের সুখী হওয়ার অধিকারের জন্য লড়াই।’

পিএসজি তারকা নেইমার তার জাতীয় দলের সতীর্থ ভিনিসিয়াসের প্রতি নিজের পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন। ইনস্টাগ্রামে তিনি লেখেছেন, ‘নাচো ভিনি নাচো। তুমি যেমন আছ, সেভাবেই আনন্দে থাকো। নাচতে থাকাই আমাদের পরিবর্তী লক্ষ্য। প্রতিউত্তরে ভিনিসিয়ান লিখেছেন, ‘সবসময়’।

নিউক্যাসল তারকা ব্রুনো গুইমারেস রিয়াল মাদ্রিদের ফরোয়ার্ড ভিনিসিয়াস জুনিয়রকে বানরের খেলা বন্ধ করতে বলার প্রেক্ষিতে পেদ্রো ব্রাভোকে গ্রেপ্তারের আহ্বান জানিয়েছেন।

টুইটারে গুইমারেস লিখেছেন, ‘এই নির্বোধ ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা দরকার! কোনো অজুহাত চলবে না। যদি কোনো ব্যক্তি লাইভ টিভিতে এসব বলে তাহলে কল্পনা করুন, পর্দার আড়ালে সে কী বলতে পারে। এই লোকটিকে জেলে না দেয়াটা অকল্পনীয় ব্যাপার হবে।’

এদিকে, ভিনিসিয়াসের ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ বিবৃতিতে তাদের দলের কোনো খেলোয়াড় সম্পর্কে কেউ বর্ণবাদী মন্তব্য করলে বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার হুমকি দিয়েছে।

‘রিয়াল মাদ্রিদ ফুটবল, খেলাধুলা এবং জীবনের ক্ষেত্রে সব ধরণের বর্ণবাদী এবং জেনোফোবিক অভিব্যক্তি এবং আচরণকে প্রত্যাখ্যান করে। যেমন আমাদের খেলোয়াড় ভিনিসিয়াস জুনিয়রের বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক সময়ে করা মন্তব্য দুঃখজনক এবং দুর্ভাগ্যজনক।’

‘ভিনিসিয়াস জুনিয়রের জন্য রিয়াল মাদ্রিদ সমস্ত ভালবাসা এবং সমর্থন দেখাতে চায়। তিনি এমন একজন খেলোয়াড় যিনি ফুটবলকে আনন্দ, সম্মান এবং খেলাধুলার উপর ভিত্তি করে জীবনের প্রতি মনোভাব হিসেবে বিবেচনা করেন।’

‘ফুটবল সবচেয়ে বড় বৈশ্বিক খেলা। এখানে অবশ্যই মূল্যবোধ এবং সহাবস্থানের দৃষ্টান্ত থাকতে হবে। আমাদের খেলোয়াড়দের প্রতি বর্ণবাদী আচরণ করলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার জন্য ক্লাব তার আইনি পরিষেবাগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে।’

বর্ণবাদী মন্তব্য করা ব্রাভো অবশ্য পরে টুইটারে ক্ষমা চান। তিনি দাবি করেন, মন্তব্যটি ছিল ‘রূপক অর্থে।’

‘আমি স্পষ্ট করতে চাই যে, ‘বানর’ মন্তব্যটি, যা আমি ভিনিসিয়াসের গোল উদযাপনের নাচের জন্য ব্যবহার করেছি, যা ছিল রূপক অর্থে। যেহেতু কাউকে আঘাত করা আমার উদ্দেশ্য ছিল না, তাই আমি আন্তরিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থী। আমি দুঃখিত।’

Oikko Uddokta