চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মহামারি শেষ হয়নি এখনও: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বুধবার সতর্কতা উচ্চারণ করে জানিয়েছে, করোনা মহামারীর প্রেক্ষপট পরিবর্তন হলেও একেবারে শেষ হয়ে যায়নি। ১১০টি দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাসচিব টেড্রোস আধানম গেব্রেয়েসুস বলেন, আমাদের ভাইরাসটিকে ট্র্যাক ক্ষমতা হুমকির মধ্যে রয়েছে কারণ রিপোর্টিং এবং জিনোমিক সিকোয়েন্সগুলি হ্রাস পাচ্ছে। যার অর্থ ওমিক্রন সহ ভবিষ্যতে উদীয়মান ভাইরাসের ধরনগুরি বিশ্লেষণ করা কঠিন হয়ে উঠছে।

Reneta June

‘অনেক জায়গায় বিএ.৪ এবং বিএ.৫ এর কেস বাড়ছে, যার ফলে সামগ্রিকভাবে বিশ্বব্যাপী করোনা সংক্রমণ ২০ শতাংশ বেড়েছে। সংস্থাটির অর্ন্তভুক্ত অঞ্চলগুলোর ৬টির মধ্যে ৩টিতেই মৃত্যুর হার বেড়েছে।’

বিজ্ঞাপন

এনডিটিভি জানায়, বৈশ্বিক স্বাস্থ্য বিষয়ে সংবাদমাধ্যমকে ব্রিফ করার সময় মহাসচিব সবগুলো দেশকে তাদের জনসংখ্যার কমপক্ষে ৭০ শতাংশকে টিকা দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

নিম্ন আয়ের দেশগুলির কয়েক মিলিয়ন স্বাস্থ্যকর্মী এবং বয়স্ক ব্যক্তি সহ কয়েক মিলিয়ন মানুষ টিকাবিহীন রয়ে গেছে জানিয়ে তিনি বলেন এর অর্থ তারা ভাইরাসের ভবিষ্যতের তরঙ্গের জন্য আরও ঝুঁকিপূর্ণ।

“শুধুমাত্র ৫৮টি দেশ ৭০শতাংশ লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করেছে। কেউ কেউ বলেছে যে, নিম্ন আয়ের দেশগুলির পক্ষে এটি করা সম্ভব নয়,”

গেব্রেয়েসুস রুয়ান্ডার উদাহরণ দিয়ে জানান সেখানে দ্বিতীয় ডোজ টিকা দেওয়ার হার এখন ৬৫ শতাংশের উপরে হলেও করোনা সংক্রমণ এখনও বাড়ছে। মহাসচিব জোর দিয়ে জানান, সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ গোষ্ঠীগুলিকে টিকা দেওয়ার সাথে আপ টু ডেট রাখা গুরুত্বপূর্ণ।