চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Nagod

আফগানদের বিদায়, সেমির দৌড়ে থাকল শ্রীলঙ্কা

হারলে বাদ, জিতলে সেমিফাইনালের দৌড়ে টিকে থাকা- এমন সমীকরণের মুখে আফগানিস্তানকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে শ্রীলঙ্কা। তাতে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই শেষ চারে যাওয়ার দৌড় থেকে ছিটকে গেল মোহাম্মাদ নবীর দল। অন্যদিকে টিকে থাকলেন দাশুন শানাকারা।

মঙ্গলবার ব্রিসবেনে গ্রুপ ১-এর খেলায় টসে জিতে ব্যাট করা আফগানিস্তান ৮ উইকেটে ১৪৪ রানের পুঁজি পায়। জবাবে লঙ্কানরা ৯ বল ও ৬ উইকেট হাতে রেখে লক্ষ্যে পৌঁছে যায়।

Bkash July

জয়ে গ্রুপের পয়েন্ট টেবিলের তিনে উঠে এসেছে শ্রীলঙ্কা। ৪ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ৪। শীর্ষে নিউজিল্যান্ড, ৩ ম্যাচে ৫ পয়েন্ট নিয়ে। এক ম্যাচ বেশি খেলা অস্ট্রেলিয়া ৫ পয়েন্ট নিয়ে রানরেটে পিছিয়ে দুইয়ে। ৩ ম্যাচে ৩ পয়েন্টে চারে ইংল্যান্ড। সেমির দৌড়ে আর না থাকা ৪ ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের জমেছে ৩ পয়েন্ট এবং আফগানিস্তান ২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শেষ স্থানে।

১৪৫ রানের লক্ষ্যে নেমে ওপেনিংয়ে ভালো সূচনা পায়নি শ্রীলঙ্কা। পাথুম নিশাঙ্কা ২ চারে ১০ রান করে মুজিব উর রহমানের বলে বোল্ড হন। সাবেক চ্যাম্পিয়নরা ৪৬ রানের মাথায় হারায় দ্বিতীয় উইকেট। রশিদ খানের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন ২৭ বলে ২৫ করা কুশল মেন্ডিস।

Reneta June

১০ ওভার শেষে লঙ্কানদের স্কোর ২ উইকেটে ৬৩। শেষ ৬০ বলে জয়ের জন্য দরকার ছিল ৮২ রান।

তৃতীয় উইকেটে ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ও চারিথ আসালাঙ্কা ৫৪ রান যোগ করেন। দলকে নিরাপদে রাখেন। ধনঞ্জয়া রানের গতি রাখেন সচল, রয়ে সয়ে ব্যাটিং করেন আসালাঙ্কা। রশিদের বলে ১৯ রান করে আসালাঙ্কা লংঅনে ক্যাচ দিয়ে ফিরলে ভাঙে জুটি।

এসেই দ্রুত রান তুলতে থাকেন ভানুকা রাজাপাকসে। শেষ ৫ ওভারে লঙ্কানদের জয়ে দরকার ছিল ২৭ রান। এমন সময় রশিদ খান বোলিংয়ে এসে ৩ রানের বেশি দেননি। রাজাপাকসের বিপক্ষে লেগ বিফোরের আবেদনে আম্পায়ার সাড়া না দিলে আফগানিস্তান রিভিউ নেয়। হক আইতে দেখা যায় বল স্টাম্পে খুব সামান্য লাগত, সেটি আম্পায়ার্স কল হয়। ফলে থেকে যায় নট আউটের সিদ্ধান্ত। এতে রশিদ পরে ক্ষুব্ধ হয়ে হাতে থাকা ক্যাপ নিয়ে বারবার শূন্যে হাত ছুঁড়ছিলেন।

মুজিব ১৪ বলে ৩ চারে ১৮ রান করা রাজাপাকসের উইকেট পেলেও দিয়ে বসেন ১৩ রান। শ্রীলঙ্কা জয় থেকে তখন মাত্র ৩ রান দূরে, হাতে ছিল ১২ বল। ফজলহক ফারুকির বলে চার মেরে ৯ বল বাকি থাকতেই খেলা শেষ করে দেন ৪২ বলে ৬ চার ও ২ ছক্কায় ৬৬ রানের দারুণ ইনিংস খেলা ধনঞ্জয়া।

৪ ওভার করে বোলিং করে মুজিব ২৪ ও রশিদ ৩১ রান দিয়ে ২টি করে উইকেট নেন।

আগে ব্যাট করা আফগানরা পাওয়ার প্লেতে ওপেনিং জুটিতে ৪২ রান যোগ করেছিল। পাওয়ার প্লে শেষে ভাঙে জুটি। রাহমানউল্লাহ গুরবাজ ২৮, উসমান ঘানি ২৭, ইব্রাহিম জাদরান ২২, নাজিবুল্লাহ জাদরানের ১৮ রানে দেড়শর কাছে যায় আফগানিস্তান।

শ্রীলঙ্কার পক্ষে ৪ ওভারে মাত্র ১৩ রানে ৩ উইকেট পান হাসারাঙ্গা। লাহিরু কুমারা ২টি ও একটি করে উইকেট নেন রাজিথা ও ধনঞ্জয়া।

Labaid
BSH
Bellow Post-Green View