চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে সংগীতশিল্পী পলাশ

Nagod
Bkash July

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি এক সময়ের তুমুল জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী পলাশ। 

সোমবার রাতে ম্যাসিভ হার্ট অ্যাটাক হয় এই জনপ্রিয় শিল্পীর। দ্রুত নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। নিবিড় পর্যবেক্ষণে চলে চিকিৎসা। ঠিক সময়ে হাসপাতালে পৌঁছানোয় এখন বেশ সুস্থ আছেন এই শিল্পী।

Sarkas

বুধবার দুপুরে চ্যানেল আই অনলাইনকে এমনটাই জানালেন সংগীতশিল্পী পলাশের বড় ভাই বকুল। তিনি বলেন, পলাশ এমনিতে বেশ সুস্থই ছিলো। কিন্তু সোমবার রাতে হঠাৎ তার শারীরিক অবস্থা খারাপ হতে থাকে। হাসপাতাল নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা জানান, পলাশের ম্যাসিভ হার্ট অ্যাটাক হয়েছে।

বকুল জানান, বর্তমানে পলাশকে সিসিইউতে রাখা হয়েছে। তবে শারীরিক ভাবে তিনি বেশ সুস্থ আছেন। কথা বলতে পারছেন। সন্ধ্যার দিকে কেবিনে স্থানান্তরিত করা হবে।

৯০ দশকের তুমুল জনপ্রিয় ভার্সেটাইল কণ্ঠশিল্পী পলাশ। মাঝখানে গানে অনিয়মিত হয়ে পড়েন। অডিও ইন্ডাস্ট্রির ধস ও ব্যক্তিগত কারণেও গান থেকে দূরে ছিলেন তিনি। ২০২০ সালে অবশ্য বিরতি ভেঙে ফিরেছেন গানের।

দীর্ঘ দিনের ক্যারিয়ারে দুই শতাধিক অ্যালবাম প্রকাশ পেয়েছে তার। এরমধ্যে একক অ্যালবামের সংখ্যা ৩০-এর অধিক। তার প্লেব্যাকের সংখ্যা এক হাজারের মতো। পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও।

গেল বছর তিনি এসেছিলেন চ্যানেল আইয়ের নিয়মিত আয়োজন ‘তিনশো সেকেন্ড’ এ। শাহরিয়ার নাজিম জয়ের উপস্থাপনায় সেই শো’তে পলাশ জানিয়েছিলেন, ‘গান এক সময়ে তার পেশা থাকলেও এখন এটা তার পেশা নয়। বর্তমানে তিনি শখের বশে গান করেন।’ পেশা কেন বদল করলেন? এমন প্রশ্নে পলাশ জানান, ‘আমি কখনো দুঃস্থ শিল্পী হতে চাই না। এজন্য পেশা বদল করেছিলাম। কারণ আমার সামনে প্রচুর উদাহরণ আছে।’

পলাশ বলেন, ‘গানের টাকা দিয়ে আমিও গাড়ি বাড়ি করেছি। কিন্তু পরবর্তীতে টিকে থাকার জন্য যেন স্ট্রাগল না করা লাগে সেজন্য বিকল্প পেশা বেছে নিয়েছিলাম।’

নব্বই দশকে ‘অরবিট’ নামের ব্যান্ডদল গড়ে সংগীত ক্যারিয়ার শুরু করেন পলাশ সাজ্জাদ। এরপর আধুনিক, ফোক, হারানো দিনের গান, রিমিক্স, র‌্যাপ গানসহ সংগীতের বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ছিল তার সফল পদচারণা।

BSH
Bellow Post-Green View