চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

৩৯ এ রণবীর: ক্যারিয়ারের সেরা সময়ে এই ‘রকস্টার’?

৩৯ বছর পূর্ণ করলেন বলিউডের ‘চকলেট বয়’ খ্যাত তারকা রণবীর কাপুর। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) এই অভিনেতার জন্মদিন। ১৪ বছরে দীর্ঘ ফিল্ম ক্যারিয়ারে বেশ জনপ্রিয় এই অভিনেতা। যারই প্রেক্ষিতে বর্তমান প্রজন্মের অন্যতম সেরা অভিনেতার তালিকায় প্রথম সারিতে তার নাম।

২০০৭ সালে সঞ্জয়লীলা বানসালির ‘সাওয়ারিয়া’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক করেছিলেন রণবীর কাপুর। ছবিটি সকলের প্রশংসা কুড়ালেও বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে। তবে এতে অভিনয়ের সুবাদে রণবীর সেরা নবাগত অভিনেতা হিসেবে ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড ঘরে তোলেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এরপর ২০০৮ সালে সিদ্ধার্থ আনন্দের রোমান্টিক-কমেডি ‘বাচনা অ্যায় হাসিনো’তে এক প্লেবয় চরিত্রে অভিনয় করে দারুণ প্রশংসা কুড়ান রণবীর। পরের বছর অয়ন মুখার্জির প্রথম পরিচালিত ‘ওয়েক আপ সিড’-এ অভিনয় করে নিজের সেরাটা দেন বলিউডের এই অভিনেতা।

তবে ২০১১ সালে মুক্তি প্রাপ্ত ইমতিয়াজ আলী পরিচালিত ‘রকস্টার’ ছবিটিই রণবীরের ক্যারিয়ারের মোড় ঘুড়িয়ে দিয়েছিলো! এই ছবিটি বক্স অফিসে সলফতার পাশাপাশি দর্শক ও সমালোচকদের থেকেও ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছিলো। এরপর ২০১২ সালে মুক্তি প্রাপ্ত অনুরাগ বসুর ‘বরফি’তে অভিনয় করে অন্যরকম জনপ্রিয়তা পেয়েছিল রণবীর। ইমতিয়াজ আলির ‘তামাশা’ তেমন জনপ্রিয়তা না পেলেও রণবীরের অভিনয় প্রসংশাতুল্য ছিল।

বিজ্ঞাপন

যদিও ‘বেশরম’এ অভিনয় করে ফ্লপের মুখে পড়তে হয়েছিল রণবীরকে। অতঃপর এক বছর বিরতি নিয়ে ভিকি সিংয়ের ‘রয়’ দিয়ে আবার বলিউডে কামব্যাক করেন রণবীর। কিন্তু সেটিও ভালো একটা ব্যবসা করতে পারেনি। এমনকি রণবীর অভিনীত ও পরিচালক অনুরাগ ক্যাশপের ড্রিম প্রজেক্ট ‘বোম্বে ভেলভেট’র দশাও একই হয়।

টানা চারটি ফ্লপের ধকল সামলে ২০১৬ সালে করণ জোহরের ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’ দিয়ে হিট ট্রাকে ফেরেন রণবীর কাপুর। অতঃপর ২০১৮ সালে আরেক মাস্টারক্লাস রাজকুমার হিরানির ‘সঞ্জু’ দিয়ে সব হিসেব পালটে যায়!

এছাড়াও ‘আজব প্রেম কি গজব কাহিনী’, ‘রকেট সিং’, ‘রাজনীতি’, ‘আনজানা আনজানি’,‘ইয়ে জাওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি’ এর মত একাধিক সিনেমা দিয়ে দর্শকদের মন জয় করেছেন।

মনে করা হচ্ছে, এই মুহূর্তে ক্যারিয়ারের সবচেয়ে ভালো সময়ে আছেন রণবীর। সঞ্জুর পর বেশকিছু বিগ বাজেটের সিনেমা ভাগিয়ে নিয়েছেন এই তারকা। হাতে আছে অ্যানিমেল, ব্রাহ্মাস্ত্র এবং শমসেরার মতো বহুল প্রতীক্ষিত ছবি।