চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ঐক্যডটকমডটবিডি’র আয়োজনে ‘ভার্চ্যুয়াল এমএসএমই উইক’

উন্নয়ন ও টেকসই শিল্পায়নের জন্য ‘আন্তর্জাতিক এমএসএমই দিবস’ গুরুত্ব অপরিসীম

আন্তর্জাতিক এমএসএমই দিবস ২০২২ উপলক্ষে ঐক্যডটকমডটবিডি আয়োজন করেছে ‘ভার্চ্যুয়াল এমএসএমই উইক ২০২২’।

২৮ জুন থেকে ১ জুলাই পর্যন্ত চার দিনব্যাপী এ আয়োজনে অংশগ্রহণ করছেন দেশের এমএসএমই উন্নয়নের অংশীদার উদ্যোক্তারা।

Reneta June

প্রতিদিন বিকেল ৫টা ১০ মিনিটে আয়োজিত অনুষ্ঠানটি সরাসরি লাইভ দেখানো হচ্ছে ঐক্য অনলাইন শপিংয়ের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজ-এ। প্রতিদিন একটি নির্বাচিত বিষয় নিয়ে এ আলোচনা করা হচ্ছে। প্রথম দিন আলোচনা বিষয়বস্তু ছিল উদ্যোক্তার উদ্যোগের ডিজিটাল রূপান্তর।

বিজ্ঞাপন

আজ বুধবার দ্বিতীয় দিনের বিষয়বস্তু ছিল ব্যবসায় অর্থায়ন বা বিনিয়োগ-উদ্যোক্তার শক্তি ও অগ্রযাত্রা।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার তৃতীয় দিন আলোচনার বিষয়বস্তু থাকবে প্রতিযোগিতামূলক বাজারে এমএসএমই উদ্যোক্তাদের অবস্থা এবং প্রতিদ্বন্দ্বিতা। এবং পরশু শুক্রবার শেষ দিনের আলোচনার বিষয়বস্তু থাকছে নারী উদ্যোক্তার নেতৃত্বে বিশ্ব এমএসএমইর অগ্রযাত্রা।

আলোচক উদ্যোক্তারা জানিয়েছেন, বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশের অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন ও টেকসই শিল্পায়নের জন্য ‘আন্তর্জাতিক এমএসএমই দিবস’ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। কারণ বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনে মাইক্রো, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পপ্রতিষ্ঠান (এমএসএমই) গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে আসছে। স্বল্প পুঁজিতে, স্বল্প সময়ে অধিকসংখ্যক মানুষের কর্মসংস্থানের অনন্য প্রতিষ্ঠান হলো এমএসএমই।

মাইক্রো, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প (এমএসএমই) খাতের টেকসই উন্নয়ন ও অর্থনীতিতে এ খাতের অবদান এবং জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ২০১৭ সালে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ ২৭ জুনকে ‘আন্তর্জাতিক এমএসএমই দিবস’ হিসাবে ঘোষণা করে। প্রতিবছর এ দিবসটি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সরকারি-বেসরকারিভাবে উদযাপন করা হয়। বাংলাদেশের এসএমই খাত উন্নয়নের শীর্ষ সংগঠন হিসাবে শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ফাউন্ডেশন (এসএমই ফাউন্ডেশন) মন্ত্রণালয়ের সার্বিক সহায়তায় প্রতিবছর এ দিবস উদযাপন হয়ে থাকে।