চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Channeliadds-30.01.24Nagod

চাপ তো কোনো সময় ছিল না: নিশো

সিনেমার এই পাইরেসি সংক্রান্ত বিষয়ে কথা বলার জন্য সোমবার (৩ জুলাই) সন্ধ্যায় মহাখালির এসকেএস টাওয়ারের সিনেপ্লেক্সের লবিতে একত্র হয়েছিলেন ‘সুড়ঙ্গ’ টিম

ঈদে দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে ৫টি সিনেমা। এরমধ্যে দর্শকের চাহিদায় তুঙ্গে রায়হান রাফীর ‘সুড়ঙ্গ’ এবং হিমেল আশরাফের ‘প্রিয়তমা’। দুর্ভাগ্যবশত সিনেমা দুটির গুরুত্বপূর্ণ অংশের ভিডিও ক্লিপ হল থেকে মোবাইলে ধারণ করে ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। বিষয়টি নিয়ে নিজেদের উদ্বেগের কথা জানিয়েছেন রাফী ও হিমেল।

সিনেমার এই পাইরেসি সংক্রান্ত বিষয়ে কথা বলার জন্য সোমবার (৩ জুলাই) সন্ধ্যায় মহাখালির এসকেএস টাওয়ারের সিনেপ্লেক্সের লবিতে একত্র হয়েছিলেন ‘সুড়ঙ্গ’ টিম। সেখানে সাংবাদিকদের সাথে আলাপচারিতায় পাইরেসি সংক্রান্ত বিষয় ছাড়াও উঠে আসে চলচ্চিত্রের বিভিন্ন বিষয়।

এ সময় সাংবাদিকদের উদ্দেশে ‘সুড়ঙ্গ’র মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখা জনপ্রিয় অভিনেতা আফরান নিশো বলেন, সুড়ঙ্গ কি শুধু আমাদের একার কাজ? এটা তো আপনাদেরও কাজ। যারা ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে কথা বলা তো শুধু আমাদের কাজ নয়। আপনাদেরও বলা উচিত, প্রতিবাদটা ওইভাবে হওয়া উচিত। আর সবকিছুই এখন ট্রেসেবল।

এসময় নিশোকে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন, নিজের প্রথম সিনেমা এবং ঈদ উৎসবে শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী থাকার কারণে কোনো চাপ অনুভব করেছেন কিনা? জবাবে এই অভিনেতা বলেন, ‘চাপ তো কোনো সময় ছিল না। শুটিংয়ের সময় ছিল। আর কীসের চাপ? বয়স হয়ে গেছে চল্লিশের উপরে। অনেক দিন ধরে তো কাজ করছি।’

Reneta April 2023

নিশোর এই বক্তব্য শেষ না হতেই একজন বলেন, ‘বয়সটা তাহলে বলে দিলেন!’ তখন নিশো বলেন, “বয়স বলতে আমার তো সমস্যা নেই। আমি তো সো কল্ড ওই হিরো না যে, বিয়ে করে বউয়ের কথা বলব না, বাচ্চার কথা বলব না। বা এ ধরনের ফিলোসোফি ছিলো অনেক আগে। তোমরা যারা হিরো, তারা বের হয়োও না। জনগণের সাথে ইন্টারেকশন করো না, অনেক বেশি এক্সক্লুসিভ থাক। এটা একটা ধরন। কিন্তু আমরা যারা ছোটপর্দায় কাজ করেছি, আমাদের অনেক বেশি উৎসাহ-অনুপ্রেরণা দিয়েছে ভক্তরা। তাদের সঙ্গে মতবিনিময়, তাদের সাথে সহজ হওয়া, কথা বলা— আমার মনে হয় এটা একটা ভদ্রতা ও আন্তরিকতা, বা এটা একটা বন্ধুত্ব। গ্লোবালি এই জিনিসটা মানুষ করে।”

এ প্রসঙ্গে টেনে নিশো আরও বলেন, আমরা যারা অভিনেতা বা পারফর্মার আমাদের দীর্ঘসময় ধরে অবজার্ভ করতে হয়। আমাকে রিক্সায় উঠতে হয়, উবারে উঠতে হয়। হোয়াই? আমিতো সব সময় এসি ঘরে বসে থাকতে পারি! তাহলে কেন এগুলো? এটা আসলে একজন অভিনেতার এক্সপেরিয়েন্স। আমাকে রোদে পুড়তে হয়, সোশালি ইনভলপ হতে হয়, বাইকে চড়তে হয়- এগুলো আমার ফিলোসোফি।