চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘আসলে রেহানা অস্বাভাবিক নয়, সমাজটা অস্বাভাবিক’

‘রেহানা মরিয়ম নূর’ দেখে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক

১২ নভেম্বর প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে আবদুল্লাহ মোহাম্মদ সাদ পরিচালিত বহুল আলোচিত সিনেমা ‘রেহানা মরিয়ম নূর’। রবিবার (২৮ নভেম্বর) সিনেমাটি দেখেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। সিনেমাটি দেখে ভূয়সী প্রশংসা করেন তিনি।

রবিবার (২৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় মহাখালীর এসকেএস টাওয়ারে স্টার সিনেপ্লেক্সে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ সিনেমাটি উপভোগ করেন পলক। এসময় এই সিনেমার কেন্দ্রীয় চরিত্র অভিনেত্রী বাঁধন, নির্বাহী প্রযোজক এহসানুল হক বাবু সহ সিনেমার কলাকুশলীরা উপস্থিত ছিলেন।

সিনেমাটি দেখে পরবর্তীতে নিজের অফিশিয়াল ফেসবুকেও একটি দীর্ঘ স্ট্যাটাস দেন পলক। জানান নিজের ভালো লাগার কথা। তিনি বলেন, ‘এই সিনেমা দেখে অনেকের ফেসবুকে কমেন্ট দেখেছি তারা বলছে ‘রেহানা’ চরিত্রটি স্বাভাবিক নাকি অস্বাভাবিক! আমি মনে করি রেহানা আসলে অস্বাভাবিক না! সমাজটা অস্বাভাবিক, রেহানা সেই সমাজের অসঙ্গতির বিরুদ্ধে একটা সাহসী কণ্ঠস্বর।’

তিনি বলেন, ‘অন্যায়ের সাথে আপোষ করবো কেন? এই যে অন্যায়ের বিরুদ্ধে রেহানার যে পদক্ষেপ এটাই স্বাভাবিক। আর সমাজের যে অসঙ্গতি সেইটাই অস্বাভাবিক! এই জায়গা থেকে আমাদের সকলের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন করতে হবে।’

বিজ্ঞাপন

সিনেমাটি নিয়ে প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, ‘আমি আশা করি বঙ্গবন্ধুর যে স্বপ্ন ছিল একটি অসাম্প্রদায়িক প্রগতিশীল সোনার বাংলাদেশ গড়ে তোলা সেই অসম্প্রদায়িক প্রগতিশীল সমাজ বিনির্মাণে আমাদের ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ এর মত আরো অনেক চলচ্চিত্র আসবে এবং আমরা বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে একটি অসাম্প্রদায়িক প্রগতিশীল প্রজন্ম হিসেবে গড়ে তুলতে পারব।’

সবশেষে তিনি সবাইকে সিনেমা হলে গিয়ে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ দেখারও অনুরোধ জানান।

বাংলাদেশের প্রথম সিনেমা হিসেবে কানের মূল মঞ্চে ডাক পাওয়া আবদুল্লাহ মোহাম্মদ সাদের সিনেমা ‘রেহানা মরিয়ম নূর’। চলতি বছরের জুন থেকেই সিনেমাটি ছিলো আলোচনায়। জুলাইয়ে কান উৎসবে দেখানোর পর আন্তর্জাতিক মিডিয়াতে ছবিটি নিয়ে হয় বেশ প্রশংসা!

শুধু তাই নয়, কান উৎসবে দেখানোর পর ‘রেহানা’ এরইমধ্যে ঘুরে এসেছে মেলবোর্ন ফিল্ম ফেস্টিভাল, বিএফআই লন্ডন ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভাল, হংকং এশিয়া ফিল্ম ফেস্টিভাল, বুসান ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভাল, সিডনি ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভালসহ মোট ১৩টি আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভাল থেকে।

বিজ্ঞাপন