চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

টাঙ্গাইলে শিক্ষার্থীদের উপর ছাত্রলীগের হামলার অভিযোগ

টাঙ্গাইলে নিরাপদ সড়ক ও গণপরিবহণে হাফ পাস ভাড়ার দাবিতে অবস্থান কর্মসূচিতে ছাত্রলীগের হামলার অভিযোগ করেছেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

শনিবার সকাল সাড়ে১১ টার দিকে টাঙ্গাইলের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

টাঙ্গাইল ছাত্র ফেডারেশন জেলা শাখার আহবায়ক ও আজকের অবস্থান কর্মসূচির প্রধান সমন্বয়ক ফাতেমা রহমান বিথি জানান, শিক্ষার্থীদের নিরাপদ সড়ক ও হাফপাস ভাড়ার দাবীতে অবস্থান কর্মসূচি চলাকালীন ছাত্রলীগের টাঙ্গাইল সদর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ আহমেদ ফরিদের নেতৃত্বে একদল ছাত্রলীগকর্মী এসে ‘টাঙ্গাইলে কোন আন্দোলন হতে দিবো না’ বলে তারা আমাদের শিক্ষার্থীদের উপর হামলা করে।

নারী  শিক্ষার্থীদের গায়ে হাত দেয় এবং অশালীন মন্তব্য করতে থাকে। এক পর্যায়ে তাদের এই কর্মকান্ডের ভিডিও ধারণ করতে গেলে সাধারণ শিক্ষার্থীদের উপর চড়াও হয়ে মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে ভাংচুর করে এবং ছবি ও ভিডিও ডিলিট করে দেয়।

বিজ্ঞাপন

সেসময় ছাত্রলীগের হামলায় টাঙ্গাইল জেলা ছাত্র ফেডারেশনের আজিজুল হক, আনিকা রহমান, প্রেমা সরকার, কাইফ সরকার, ইব্রাহিম জুনায়েদ, আহাদ ইসলাম, বিপ্লব রেজাসহ প্রায় ১০জন শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। শিক্ষার্থীদের উপর হামলায় সময় প্রশাসনের লোকজন উপস্থিত থাকলেও তারা নীরব ভূমিকা পালন করেছে । প্রশাসনের মদদ ও সহযোগিতাতেই ছাত্রলীগ সাধারণ শিক্ষার্থীদের উপর এই হামলা চালিয়েছে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে ছাত্রলীগ শিক্ষার্থীদের সকল ন্যায়সঙ্গত আন্দোলন দমনে সরকারের প্রধান লাঠিয়াল বাহিনী হিসেবে কাজ করছে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে ‘গণবিরোধী সংগঠন’ হিসেবে আখ্যা দিয়ে তাদের বর্জন করার আহ্বান জানান। সাথে সাধারণ শিক্ষার্থীদেরকে এই সন্ত্রাসী সংগঠনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হবার আহ্বান জানিয়ে যেসকল ছাত্রলীগ নেতাকর্মী শিক্ষার্থীদের উপর হামলা করেছে তাদের শাস্তি দাবি করেন তিনি।

সে সময় হামলার বিষয়ে টাঙ্গাইল সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ আহমেদ ফরিদের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

অন্যদিকে হামলার প্রতিবাদে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সামনে বিকাল ৪ টার দিকে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এসময় তারা ওই হামলার তীব্র নিন্দা ও শাস্তির দাবি জানান।

বিজ্ঞাপন