চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নামিবিয়ায় ধরাশায়ী এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা

গ্রুপ-এ

Nagod
Bkash July

টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসরের গ্রুপপর্বেও নামিবিয়ার দেখা পেয়েছিল শ্রীলঙ্কা। সেবার নবাগত দলটিকে ৯৬ রানে আটকে ৭ উইকেটের জয় তুলেছিল বর্তমান এশিয়ান চ্যাম্পিয়নরা। অষ্টম আসরে ফল হল উল্টো। অপেক্ষাকৃত কমশক্তির নামিবিয়ায় আটকে গেল দাসুন শানাকার দল।

Reneta June

রোববার টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের উদ্বোধনী দিনে টেস্ট খেলুড়ে দেশটির বিপক্ষে ৫৫ রানের বড় ব্যবধানে জিতেছে নামিবিয়া। ৭ উইকেট হারিয়ে ১৬৩ রান তোলে এরাসমাসের দল। জবাবে সবকয়টি উইকেট হারিয়ে ১০৮ রান জমা করতে পারে লঙ্কাবাহিনী।

গিলংয়ের জিএমএইচবিএ স্টেডিয়ামে লঙ্কানদের পতনের শুরু দ্বিতীয় ওভার থেকেই। দলীয় ১২ রানে কুশল মেন্ডিসকে উইকেটের পেছনে ক্যাচ বানান ডেভিড ভিসে। আরেক ওপেনার পাথুম নিশাঙ্কাও পারেননি বেশি সময় থাকতে। দলের রান যখন ২১, ৯ রানে ফেরেন তিনি। দুই ওপেনার হারিয়ে ধুঁকতে থাকা দলকে আরও চাপে ফেলে যান ধানুষ্কা গুনাথিলাকা, রানের খাতাই খুলতে পারেননি।

পরে গুনাথিলাকার মতো জান ফ্রেইলিঙ্ক ও বেন শিকোনগোতে ব্যর্থ হন ধনঞ্জয়া ডি সিলভাও। ৪০ রানের মাঝে ৪ উইকেট হারিয়ে বসে গত এশিয়া কাপের চ্যাম্পিয়ন দলটি। মাঝে ভানুকা রাজাপাকসেকে নিয়ে জুটি গড়ার চেষ্টা করেন অধিনায়ক দাসুন শানাকা। বেরনার্দ স্কোল্টজের তোপে বেশি সময় থাকতে পারেননি তারাও।

বোর্ডে ৭৪ রানের সময় রাজাপাকসে ফেরেন ২১ বলে ২০ করে। ৮৮ রানের সময় ২৩ বলে ২৯ করে ফেরেন লঙ্কান অধিনায়ক। শেষদিকে হাসারাঙ্গা, চামিকা করুণারত্নে, প্রমোদ মাদুশানরা ব্যর্থ হলে জয়ের খুব কাছে চলে আসে নামিবিয়া। শেষ জুটিতে ১৬ রান তুললেও হার ঠেকাতে পারেননি মাহেশ থিকসানা-দুশমন্থ চামিরা।

লঙ্কানদের হারিয়ে দেয়ার দিনে ব্যাটের পর বল হাতেও দুর্দান্ত কাটিয়েছেন ম্যাচসেরা ফ্রেইলিঙ্ক। ৪ ওভারে ২৬ রান খরচায় নিয়েছেন ২টি উইকেট। দুজন করে লঙ্কান ব্যাটারকে ফিরিয়েছেন ডেভিড ভিসে, বেরনার্দ ও বেন শিকোনগো।

আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে বাজে শুরু পায় নামিবিয়া। বোর্ডে ১৬ রান তুলতেই ফিরে যান দুই ওপেনার। তিনে নামা জান নিকোল প্রথম বল থেকেই হন মারমুখী। ১২ বলে ১ চার ও ২ ছক্কায় ২০ রান করে করুণারত্নের শিকার হন তিনি।

চতুর্থ উইকেট জুটিতে স্টিফেন বার্ড ও অধিনায়ক গেরহার্ড এরাসমাস যোগ করেন ৩৬ রান। ২৪ বলে ২০ রান করে এরাসমাস ও ২৬ রান করে ফেরেন বার্ড।

গত টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপে দুর্দান্ত কিছু জয় এনে দেয়ার সাক্ষী ডেভিড ভিসে এদিন ব্যাট হাতে ছিলেন পুরোপুরি ব্যর্থ। প্রথম বলেই তাকে এলবির ফাঁদে ফেলেন থিকসেনা। ১৪.২ ওভারে যখন ভিসে ফেরেন, নামিবিয়ার সংগ্রহ ৬ উইকেটে ৯৩ রান।

দৃশ্যপটে পরের সব আলো কেড়ে নেন ফ্রেইলিঙ্ক ও জেজে স্মিট। অবিচ্ছিন্ন জুটিতে শেষ ৩৪ বলে ৭০ রান তোলে দুজনে। ২৮ বলে ৪ চারের মারে ৪৪ রানের ইনিংস সাজান ফ্রেইলিঙ্ক। ১৬ বলে দুটি করে চার-ছয়ে ৩১ রানের ক্যামিও খেলে ১৬৩ পর্যন্ত সংগ্রহ টানেন স্মিট।

লঙ্কানদের হয় দুটি উইকেট নেন দিলশান মাদুশাঙ্কার বদলি নামা প্রমোদ মাদুশান। একটি করে উইকেট নেন থিকসানা, চামিরা, করুণারত্নে ও হাসারাঙ্গা।

BSH
Bellow Post-Green View