চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Cable

যেসব কারণে অবশ্যই ‘বিউটি সার্কাস’ দেখা উচিত

শুক্রবার দেশের ১৯টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেল ইমপ্রেস টেলিফিল্মের এই ছবি

Nagod
Bkash July

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে বড় পর্দায় মুক্তি পেলো সরকারি অনুদানে নির্মিত ইমপ্রেস টেলিফিল্ম প্রযোজিত মাহমুদ দিদারের ‘বিউটি সার্কাস’। ট্রেলার ও গান প্রকাশ করেই সিনেপ্রেমী মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে গেছে তারকাবহুল এই ছবি মুক্তির খবর।

সিনেমাটি নিয়ে সাধারণ দর্শক থেকে সিনে-আলোচকরাও মুখিয়ে, সমকালীন নির্মাতা, তারকারাও ‘বিউটি সার্কাস’ দেখতে দর্শকদের অনুরোধ করছেন। এদিন সকাল থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে ঢুঁ দিচ্ছেন নির্মাতা সহ ছবির অভিনয়শিল্পী ও কলাকুশলীরা।

প্রথম শো সমাপ্তির পর থেকেই অনেকেই ‘বিউটি সার্কাস’ নিয়ে ইতিবাচক মন্তব্য করছেন। সাধারণ দর্শকের কাছে ছবিটি পাচ্ছে ভালো রেটিং। জেনে নিন কেন ‘বিউটি সার্কাস’ সিনেমাটি অবশ্যই দেখা উচিত:

সিনেমার বিষয়বস্তু যখন ঐতিহ্যবাহী সার্কাস
সার্কাসকে বলা হতো ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতি। নানা রকম শারীরিক কসরত, বিনোদন আর প্রাণীদের খেলা দেখানোর মধ্য দিয়ে চলতো সার্কাস। এক সময় এটি সমাজের সর্বস্তরের মানুষের বিনোদনের জনপ্রিয় মাধ্যম ছিল। শীত মানেই দেশের জেলা, উপজেলা শহরগুলোতে বসতো সার্কাস। নব্বই দশকেও রাজধানী সহ জেলা শহরগুলোতে নিয়মিত সার্কাস বসতো। কিন্তু ঐতিহ্যবাহী এই মাধ্যমটি প্রায় হারিয়ে গেছে। কিন্তু সার্কাস শিল্পকেই বড় পর্দায় ফিরিয়ে আনলো ‘বিউটি সার্কাস’। সার্কাসকে কেন্দ্র করে এক নারীর টিকে থাকার গল্পে নির্মিত হয়েছে মাহমুদ দিদার পরিচালিত এই ছবিটি।

বিউটি কুইন জয়া আহসান
ঢাকা ও কলকাতার সিনেমায় দক্ষ অভিনেত্রী জয়া আহসান। গত কয়েক বছরে তার অভিনীত প্রায় সব ছবিই দর্শকের মন কেড়েছে! কী ঢাকায়, কী কলকাতায়! বিসর্জন, বিজয়া কিংবা খাঁচা, দেবী- সবখানেই আলো ছড়িয়েছেন এই অভিনেত্রী। ‘বিউটি সার্কাস’ সিনেমায় কেন্দ্রীয় চরিত্রে তিনিই। ছবিটির চরিত্র হয়ে উঠতে তার ত্যাগ তিতিক্ষার কথা ইতোমধ্যে দর্শক জেনেছেন! বলার অপেক্ষা রাখে না, এই চরিত্রেও তিনি নিজের সর্বোচ্চটা দিয়েছেন। জয়ার অভিনয় ক্যারিশমা দেখতে হলেও সিনেপ্রেমী দর্শকের ‘বিউটি সার্কাস’ দেখা উচিত।

মাহমুদ দিদারের প্রথম ছবি
ছোট পর্দায় মেধার সাক্ষর রেখেছেন মাহমুদ দিদার। তার গল্প চিত্রনাট্য ও পরিচালনায় বেশকিছু টিভি ফিকশন সময়ের কথা বলে। ট্রেন্ডিতে গা না ভাসিয়ে তার কাজ ভাবনার খোরাক যোগায়। সেই হিসেবে নির্মাতার প্রথম ছবি হলেও, তাতে ভরসা করা যায়। তাছাড়া সিনেমার বিষয়বস্তু হিসেবে তিনি বেছে নিয়েছেন বাংলার সার্কাস শিল্পকে। যা অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং তো বটেই, সেই সঙ্গে ব্যয় সাপেক্ষ! দীর্ঘদিনের সংগ্রামের পর তিনি সিনেমাটি দর্শকের পাতে তুলে দিলেন। এখন দর্শকই সিদ্ধান্ত নিবেন।

অকাল প্রয়াত হুমায়ূন সাধু
অভিনেতা হুমায়ূন সাধুকে সাধারণ দর্শক পছন্দ করতেন। অভিনেতার বাইরেও তিনি ছিলেন নির্মাতা, লেখক। সাহিত্যাঙ্গনের সাথে ছিলো তার নিবিড় সম্পর্ক। তার অকাল প্রয়াণে ব্যথিত হয়েছেন সবাই। তার অভিনীত মুক্তির অপেক্ষায় থাকা শেষ ছবি ‘বিউটি সার্কাস’। ছবিতে তিনি জয়া আহসানের সার্বক্ষণিক সঙ্গী। তার চরিত্রের নাম স্যাম।

শুধু জয়া কিংবা সাধু নয়, এই সিনেমায় আছেন বেশ কিছু তারকা মুখ। এরমধ্যে তৌকীর আহমেদ, চিত্রনায়ক ফেরদৌস, এবিএম সুমন, গাজী রাকায়েত, শতাব্দী ওয়াদুদ উল্লেখযোগ্য!

BSH
Bellow Post-Green View
Bkash Cash Back