চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অর্থ পাচারের অভিযোগে দিল্লীর স্বাস্থ্যমন্ত্রী গ্রেপ্তার

অর্থ পাচারের অভিযোগে দিল্লীর স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈনকে গ্রেপ্তার করেছে ভারতের এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেট (ইডি)। সত্যেন্দ্র জৈন দিল্লীর ক্ষমতাসীন আম আদমি পার্টির একজন নেতা।

এনডিটিভি জানায়, কলকাতার একটি সংস্থার সঙ্গে হাওয়ালা লেনদেনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সম্পৃক্ত ছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

Reneta June

গত মাসেই ইডি জানিয়েছিল, জৈন পরিবার ও কোম্পানির প্রায় ৪ কোটি ৮১ লাখ টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এই আর্থিক তছরুপের মামলায়। ২০১৮ সালে আম আদমি পার্টির নেতৃত্বকেও এই ঘটনায় জেরা করেছিল ইডি।

বিজ্ঞাপন

গত জানুয়ারিতে দিল্লীর মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানিয়েছিলেন, গোয়েন্দা রিপোর্ট বলছে পাঞ্জাব ভোটের আগেই জৈনকে গ্রেপ্তার করবে ইডি। এবার তিনি সত্যিই গ্রেপ্তার হয়েছেন। তবে সেটা পাঞ্জাব দখলের পরে।

কেজরিওয়াল আরও জানিয়েছিলেন, এর আগেও ইডি একাধিকবার তল্লাশি চালিয়েছে। কিন্তু কিছুই পায়নি। ফের যদি তারা আসতে চায়, তবে তাদের স্বাগত।

এদিকে দিল্লীর উপমুখ্যমন্ত্রী মণীষ শিসোদিয়া জানিয়েছেন, হিমাচল প্রদেশে ভোটের কাজে সক্রিয় অংশ নিচ্ছিলেন সত্যেন্দ্র জৈন। সেকারণেই তাকে ভুয়া মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গত ৮ বছর ধরে তার বিরুদ্ধে ভুয়া মামলা চালানো হচ্ছিল।

তিনি জানান, বার বার ইডি তাকে ডেকেছিল। কিছু না পেয়ে এক সময় ডাকাডাকিও থামিয়ে দেয়। যাতে তিনি হিমাচল প্রদেশে প্রচারে যেতে না পারেন, সেকারণেই এবার তাকে গ্রেপ্তার করা হলো।

ভারতের এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেট (ইডি) কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈনকে আদালতে হাজির করা হবে এবং জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার বিরুদ্ধে রিমান্ড চাইবে।