চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনায় আরও ৬ জনের মৃত্যু, শনাক্ত কিছুটা কমেছে

দেশে কোভিড-১৯ সংক্রমণের ৮৪৪তম দিনে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা ২৯ হাজার ১৬০ জন।

শেষ ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন আরও এক হাজার ১০৫ জন। শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ২২ শতাংশ। শনাক্তের হার গতদিনের চেয়ে কমেছে।

Reneta June

এর আগে গত ২১ মে এবং তার ৯ দিন পর ৩০ মে আবার মৃত্যু দেখে বাংলাদেশ। গত ৫ আগস্ট দেশে সর্বোচ্চ ২৬৪ জন রোগী মারা যায়। গত ২৮ জুলাই সর্বোচ্চ শনাক্ত হয় ১৬ হাজার ২৩০ জন।

বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবীরের সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় (অ্যান্টিজেন টেস্টসহ) আট হাজার ৩৫৭টি পরীক্ষায় এক হাজার ১০৫ জন এই ভাইরাসে শনাক্ত হয়েছেন। এই সময়ে পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ২২ শতাংশ। তবে শুরু থেকে মোট পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৭৬ শতাংশ।

সরকারি ব্যবস্থাপনায় এখন পর্যন্ত ৯৪ লাখ ৪৯ হাজার ৭৬৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা হয়েছে ৪৯ লাখ ১৮ হাজার ৯৬৬টি নমুনা। অর্থাৎ মোট পরীক্ষা করা হয়েছে এক কোটি ৪৩ লাখ ৬৮ হাজার ৭৩১টি নমুনা। এর মধ্যে শনাক্ত হয়েছে ১৯ লাখ ৭৬ হাজার ৭৮৭ জন। তাদের মধ্যে ২৪ ঘণ্টায় ২৩৩ জনসহ মোট ১৯ লাখ সাত হাজার ৯৯০ জন সুস্থ হয়েছে। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৬ দশমিক ৫২ শতাংশ।

মৃত পাঁচজনের মধ্যে তিনজন পুরুষ ও তিনজন নারী। তাদের মধ্যে ১০ থেকে বিশ বয়সী একজন, ত্রিশোর্ধ্ব দু’জন, পঞ্চাশোর্ধ্ব একজন, ষাটোর্ধ্ব একজন ও সত্তোরঊর্ধ্ব একজন। বিভাগওয়ারী হিসেবে ঢাকা বিভাগে তিনজন, চট্টগ্রাম বিভাগে দু’জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন।

ওয়ার্ল্ডোমিটারসের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত ৫৫ কোটি ৩৭ লাখের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৬৩ লাখ ৬০ হাজারের বেশি। তবে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৫২ কোটি ৮৪ লাখের বেশি।