চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Oikko

প্রধানমন্ত্রীর উপহারে আনন্দিত ও বাবার শোকে কাতর রূপনা 

Oikko SME

বাংলাদেশের নারী ফুটবলারদের সাফে শিরোপা জয়ে তাদের পারফরম্যান্স নিয়ে যেমন চলছে প্রশংসা, একইসঙ্গে তাদের অনেকের পারিবারিক অভাব অনটন নিয়েও হচ্ছে আলোচনা। গোলরক্ষক রূপনা চাকমার পারিবারিক অস্বচ্ছলতার খবর জেনে তাকে বাড়ি তৈরি করে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এমন আনন্দের মাঝেও রূপনার রয়েছে তীব্র বেদনা। এমন দিনবদলের ক্ষণে বাবাকে পাশে না পাওয়া তাকে কষ্ট দিচ্ছে।

Reneta June

অপরাজিত চ্যাম্পিয়নদের আক্রমণ ও মধ্যমাঠের পাশাপাশি রক্ষণটাও বেশ শক্তিশালী। ৫ ম্যাচে বাংলাদেশ ২৩টি গোল করেছে। বিপরীতে হজম মাত্র একটি।  গোলরক্ষক রূপনা চাকমা যেন পোস্টের সামনে হয়ে উঠেছিলেন অতন্ত্র প্রহরী।

আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে বেশ প্রশংসিত বাংলাদেশের রক্ষণও এখন চীনের প্রাচীর। প্রতিপক্ষ যতবার আক্রমণে উঠেছে রূপনাকে দেখা গেছে সদা তৎপর। কখনো ঝাঁপিয়ে পড়ে, কখনো বা সামনে দৌড়ে এসে নিয়ন্ত্রণে নিয়েছেন বল। ঘটতে দেননি বিপদ।

শনিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বাবা হারানোর আক্ষেপের কথাই জানিয়েছেন রাঙামাটির ১৮ বর্ষী ফুটবলার। রূপনার ফেসবুক পোস্টটি হুবহু তুলে ধরা হল-

‘জন্মের আগে বাবাকে হারিয়েছি। আজকের এই আনন্দময় দিনে যদি বাবা থাকতো তাহলে, আনন্দটা আরও বহুগুণে বৃদ্ধি পেতো। এমন সময়ে বাবাকে খুব মিস করছি।’

‘যেখানে থাকেন ভালো থাকবেন। আপনার আত্মার শান্তি কামনা করি। আজকে আমি যে জায়গায় দাঁড়িয়ে আছি এবং বাংলাদেশকে রিপ্রেজেন্ট করছি বাবা হারা মেয়ে হয়েও বাবা হারানো যন্ত্রণা বা অনুভূতি বুঝতে দেননি এই মহৎ ব্যক্তিত্ব পরম শ্রদ্ধেয় স্যারেরা। এই স্যাররা বাবার মতো করে একটা ছাত্রী বা মেয়েকে কিভাবে গড়ে তুলতে হয় তা আমাকে গড়ে তুলেছেন। স্যারেরা যদি আমাকে আগলে না রেখে আমার মেধাকে গুরুত্ব না দিতো, তাহলে এতদিন শিক্ষা তো দূরের কথা, আমিও মায়ের সাথে দিনমজুরের কাজে ব্যস্ত থাকতাম।’

‘স্যারেরা আমাকে সাপোর্ট দেয়ার ফলে আজ আমি এই জায়গায় দাঁড়িয়ে নিজেকে এবং বাংলাদেশকে রিপ্রেজেন্ট করতে পারছি। এই এক আনন্দময় দিনে স্যারদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানাচ্ছি। আশা করি এই আনন্দময় দিয়ে স্যারেরাও গর্ববোধ করবেন এবং আমাকে আরও দূরে এগিয়ে যাওয়ার জন্য উপদেশ এবং আর্শীবাদ করবেন। আমিও তাদের মতো স্যারদের পথধূলি পেয়ে নিজে খুব গর্ববোধ করি।’

‘স্যার মানে বাবা- এই বাবার দায়িত্ব কাঁধে নিয়ে স্যারেরা আমার যোগ্যতাকে কাজে লাগার সুযোগ করে দিয়েছেন। তাই সেই সব স্যারদের সুস্থ ও নিরোগী দীর্ঘাযু কামনা করি। আমার বাবার প্রতিও অশেষ শ্রদ্ধা জানাচ্ছি।’

এর আগে গত বুধবার প্রধানমন্ত্রী বাড়ি নির্মাণ করে দেয়া প্রসঙ্গে আবেগি স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন রূপনা চাকমা। কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি তিনি এমন অনুপ্রেরণা পাওয়ায় আরও সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়ের কথা জানান। প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে রূপনার ফেসবুক পোস্টটি হুবহু তুলে ধরা হল-

‘মমতা ময়ী ‘মা’ দেশনেত্রী মা শেখ হাসিনা আমার জন্য বাড়ি করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। সেই খবর শুনে চোখের জল ধরে রাখতে পারিনি। কীভাবে মনের ভাব প্রকাশ করবো, তা বলে বোঝাতে পারবো না।

‘শুধু একটি কথা বললো। দেশ মানে মায়ের সমান। দেশের জন্য কিছু একটা করতে পেরে নিজেকে খুব ধন্য মনে করছি। আমাদের সুখে-দুঃখে যাকে আমি এবং আমরা পাই, সেই দেশনেত্রী মা শেখ হাসিনা আমাকে এমন সহযোগিতা করবে, আমি কখনো ভাবিনি। তবে স্বপ্ন নয়, বাস্তব মা আমার জন্য বাড়ি তৈরি করার জন্য ঘোষণা দিয়েছেন। জানি না এই প্রাপ্য আমার জন্য ছিল কি না। তবে আমরা দেশের জন্য মরিয়া হয়ে সুনাম অর্জন করতে বদ্ধপরিকর। হয়তো এই অর্জনটা আমার বা আমাদের জন্য শুরু মাত্র। তবে আরও অনেক বাকি দেশকে বিশ্ব দরবারে পৌঁছাতে। এমন অনুপ্রেরণা এবং আর্শীবাদ পেলে আমরা আরও দৃঢ় মনোবল নিয়ে সামনে এগোতে পারবো। এটাই আমাদের মূল শক্তি।’

‘মা আপনার দোয়া থাকলে আরও বড় কিছু আমরা দেশের জন্য আশা করতে পারি। ‘মা’ দেশরত্ন শেখ হাসিনা, আপনার সুস্বাস্থ্য এবং দীর্ঘায়ু কামনা করি।’

Oikko Uddokta