চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

৭ দিনের জন্য দিল্লীকে বন্ধ করতে কেজরিওয়ালের সিদ্ধান্ত

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার বলছে ‘ই-পাস’র দরকার নেই, অবাধে যাতায়াত চলুক বিভিন্ন রাজ্যের মধ্যে। কিন্তু সে দেশের বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা নিজেদের মতো নিয়ম বানিয়ে চলেছেন। এবার ৭ দিনের জন্য ভারতের রাজধানী দিল্লীকে বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিলেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

হিন্দুস্থান টাইমসের খবরে প্রকাশ, দিল্লীর বর্ডার খোলা উচিত কিনা, এই প্রসঙ্গে জনগণের সাজেশন চেয়েছেন দিল্লীর মুখ্যমন্ত্রী। শুক্রবারের মধ্যে হরিয়ানা ও উত্তরপ্রদেশ বর্ডার খোলা নিয়ে সাজেশন দিতে দুটি ফোন নম্বর ও একটি ইমেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হয়েছে (8800007722 ও 1031, [email protected]) ।

বিজ্ঞাপন

দিল্লী, গুরগাঁও ও নয়ডা মিলে ট্রাই-সিটি এক সুতোয় বাঁধা। অনেক মানুষই এক রাজ্য থেকে আরেক রাজ্যে যান কাজ করার জন্য। বর্ডার বন্ধ থাকায় মারাত্মক অসুবিধা হচ্ছে সবার।

বিজ্ঞাপন

কেজরিওয়াল বলেন, যাদের পাস আছে ও যারা অত্যাবশ্যক পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত, তারা অন্য রাজ্য থেকে আসতে পারবেন। কেজরিওয়াল বলেন যে এখন বর্ডার খুলে দিলে অন্য রাজ্যের মানুষরা এসে সব কোভিড পরিষেবা নিয়ে নেবেন, দিল্লীবাসীরা সুযোগ পাবেন না।

একই সঙ্গে কেজরিওয়াল বলেন যে দিল্লীতে কোভিড রোগীদের চিকিত্সার জন্য বেডের অভাব নেই। কেন্দ্র যা যা ছাড় দিয়েছে, সব কিছুই দিল্লীতে প্রযোজ্য হবে বলে দাবি করেন কেজরিওয়াল। যদিও সবার যে দিকে নজর ছিল, সেই অন্তঃরাজ্য যাতায়াত এখনও করতে দিচ্ছে না আপ সরকার।

এদিন কেজরিওয়াল বলেন যে সেলুন ও চুল কাটার দোকান খুলতে পারে, কিন্তু স্পা খোলা যাবে না। সব দোকান খুলতে পারে, সমস্যা নেই। একই সঙ্গে চার চাকার যান ও দুই চাকার যানে যাতায়াতের ওপর কোনও বিধিনিষেধ থাকবে না বলেও জানিয়ে দিয়েছেন কেজরিওয়াল।