চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হেড কোচের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত আগামী মাসে

‘কোচিংয়ে সমস্যা থাকলে পরিবর্তন আসবেই’

রাসেল ডমিঙ্গোর অধীনে বাংলাদেশ দল তেমন সাফল্য পায়নি। উল্টো হতাশায় ডুবেছে টিম টাইগার্স। টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপে ভরাডুবির পর হেড কোচের নিজ পদে থাকা নিয়েই প্রশ্ন তৈরি হয়েছে। বিশ্বকাপের মাঝে দুবছরের চুক্তি হয়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছে বিসিবিও। বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন অবশ্য সরাসরি জানিয়ে দিলেন কোচিংয়ে সমস্যা থাকলে পরিবর্তন আসবেই।

শনিবার নাজমুল হাসান পাপন জানালেন কোচের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে জানুয়ারিতে, ‘কোচের সাথে দূরত্ব, মনোমালিন্য যা যা আপনারা বলছেন, আপনারা যেরকম জানেন আমিও তেমন শুনি। কিন্তু আসল জায়গা থেকে তো কেউ কিছু বলছে না। যদি না বলে তাতে লাভটা হবে কী। শোনা তো সবই যাচ্ছে। আরও অনেককিছুই তো শুনি।’

‘আপনি যদি আসল জায়গা থেকে তথ্য না পান, ভেতরে যেতে না পারেন। তাহলে কিন্তু সমস্যার সমাধান হবে না। সুতরাং অধৈর্যের কিছু নেই। আমরা জানুয়ারিতে সিদ্ধান্ত নেবো। আমাদের এই মাসটা সময় আছে। এই মাসের মধ্যে সব তথ্য দিতে পারব আপনাদের। যা যা সিদ্ধান্ত নেয়া দরকার তা নেবো।’

বিজ্ঞাপন

‘কোচিংয়ে সমস্যা থাকলে পরিবর্তন আসবেই। এক সেকেন্ডও দেরি করবো না। যদি এখন জয় কোচের কথা না শোনে, তাহলে তো আরেকটু গভীরে যেতে হবে। সমস্যা সহজ না। আসল জিনিস জানার চেষ্টা করছি। তারপর যে সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত, সেটাই নেবো।’

‘বিশ্বকাপ শুরুর ঠিক আগ মুহূর্তে রাসেল ডমিঙ্গো আমাদের কাছে লেখে যে ও খুব ভালো একটা প্রস্তাব পেয়েছে। ও চলে যেতে চায়। জানতে চাচ্ছিল আমরা তার সঙ্গে চুক্তি বাড়াব কিনা, যদি না বাড়াই তাহলে ঝুঁকির মধ্যে থাকবে না। যেহেতু কোভিড পরিস্থিতি, তাহলে ওই জায়গায় কথা দিয়ে দেবে।’

‘তখন আমরা অনেক খোঁজাখুঁজি করেছিলাম। পরে দেখলাম এই সময়ের মধ্যে কোনো কোচ পাবো না। দ্বিতীয় কথা হচ্ছে যদি পাইও, ঠিক বিশ্বকাপের আগে আগে নতুন কোচ আনব কিনা সেটা নিয়েও দ্বিধাদ্বন্দ্বে ছিলাম। বেশিরভাগ কোচ যাদের দেখছিলাম, তারা আগামী বিশ্বকাপ পর্যন্ত বুকড।’ বলেন বিসিবি সভাপতি।

বিজ্ঞাপন