চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সৌমিত্রের আরো অবনতি, চিকিৎসকদের উদ্বেগ

দিন যত বাড়ছে, শারীরিক অবস্থা যেন আরো বেশি জটিল হয়ে পড়ছে ফেলুদা খ্যাত বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের। শুক্রবার রাত থেকে শনিবার দুপুর পর্যন্ত তার অবস্থাকে ‘অত্যন্ত আশঙ্কাজনক’ বলছেন বেলভিউ হাসপাতালের চিকিৎসকরা।

শারীরিক নানান সমস্যার পাশাপাশি বর্তমানে মস্তিষ্কও কাজ করা বন্ধ হয়ে গেছে এই অভিনেতার।

বিজ্ঞাপন

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের ইইজি রিপোর্টে ব্রেনের খুব কম কাজ ধরা পড়েছে। ফলে তার মস্তিষ্কের স্নায়ুর সচেতনতা অর্থাৎ গ্লাসগো কোমা স্কেলে সূচক নেমে দাঁড়িয়েছে মাত্র ৫-এ! যার ফলে তার অক্সিজেনের চাহিদাও আগের থেকে অনেকখানি বেড়েছে।

গত ৫ অক্টোবর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসার পরের দিন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। এরপর করোনা মুক্ত হয়ে এক মাসেরও বেশি সময় পার হয়ে গেলেও তার শারীরিক অবস্থার কোন উন্নতি হচ্ছে না। বরং বর্তমানে সবথেকে খারাপ পরিস্থিতিতে রয়েছেন এই অভিনেতা।

গত মাসের শেষ থেকেই ভেন্টিলেশন সাপোর্টে রয়েছেন প্রবীন এই অভিনেতা। শুধু মস্তিষ্কই নয় ঠিকভাবে কাজ করেছে না অভিনেতার হার্টও। কিডনির পরিস্থিতিও খুব একটা আশাজনক নয় বলে জানিয়েছে চিকিৎসকরা।

শুধু তাই নয়, অভিনেতার রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে আলাদা সাপোর্ট ব্যবহার করতে হচ্ছে। পাশাপাশি অভিনেতার হার্ট রেট অনেকখানি বেড়ে গেছে।

এই অভিনেতার চিকিৎসার দায়িত্বে থাকা মেডিক্যাল বোর্ডের প্রধান অরিন্দম কর জানিয়েছেন, ‘সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের কিডনি ভালোমতো কাজ করছে না,  ওনার ডায়ালেসিস করা হচ্ছে। আগামি ২৪ ঘন্টায় পরিস্থিতি খুব খারাপের দিকে যেতে পারে। প্রথমবার আমরা প্রতিকূল ফলাফলের আশঙ্কা করছি। আমরা সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করছি কিন্তু আমাদের সেরাটা হয়ত ওনার শরীরের পক্ষে যথেষ্ট হচ্ছে না।’