চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যে পালিত হচ্ছে ঈদ-উল-আযহা

সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশ, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র-সহ ইউরোপ-আমেরিকার বিভিন্ন দেশে মুসলমানদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আযহা পালিত হচ্ছে।

ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে মক্কার পবিত্র কাবা শরীফ ও মদিনা মসজিদে নববীতে।

বিজ্ঞাপন

স্থানীয় সৌদি নাগরিক ও প্রবাসীদের মধ্যে বইছে ঈদের আনন্দ। বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসের মধ্যেও ঈদ আনন্দের কোন কমতি ছিল না। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সৌদি আরবের প্রতিটি মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। পশু কোরবানি দিয়ে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করবেন স্থানীয় এবং প্রবাসীরা।

এছাড়াও হজব্রত পালন করতে আসা হাজিরা মুজদালিফা ময়দানে ফজরের নামাজ আদায় করে মিনায় পৌঁছে প্রথম দিন বড় শয়তানকে ৭টি কংকর নিক্ষেপ করছেন। এভাবে আরো তিন দিন মিনায় অবস্থান করে পর্যায়ক্রমে তিনটি শয়তানকে কংকর নিক্ষেপ করবেন হাজিরা।

সৌদি আরবে স্থানীয় এবং প্রবাসী নাগরিকদের মধ্য থেকে ৬০ হাজার ধর্মপ্রাণ মুসলমান এবছর হজব্রত পালন করেছেন।

সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ডক্টর মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী, জেদ্দাস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল নাজমুল হক, কাউন্সিলর হজ জহিরুল ইসলাম, কাউন্সিলর( শ্রম) মোঃ আমিনুল ইসলামসহ বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি এ বছর হজ পালন করেছেন বলে জানা গেছে।

গতকাল হাজিরা  আরাফাতে  থেকে মুজদালিফায় পৌঁছে রাত্রিযাপন করে আজ সকালে ফজরের নামাজ আদায় করে মিনায় এসে  শয়তানকে ৭টি কংকর নিক্ষেপ করা পর্যন্ত কোন ধরনের দুর্ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।তবে অনুমতি ছাড়া হজব্রত পালন করার চেষ্টা করায় ১৬০ জনের অধিক স্থানীয় এবং প্রবাসীকে আটক করেছে সৌদি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

সৌদি সরকার প্রথম থেকেই সতর্ক করে দিয়েছিল অনুমতি ছাড়া কাউকে হজব্রত পালন না করতে। একদিকে বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধ অন্যদিকে সৌদি সরকারের কঠোর নির্দেশনার কারণে বহির্বিশ্ব থেকে এবার কেউ হজ পালন করতে পারেনি।

বিজ্ঞাপন