চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর হাতে আটক অং সান সু চি

মিয়ানমারের ক্ষমতাসীন দলের প্রধান অং সান সু চিকে আটক করেছে দেশটির সেনাবাহিনী। এর ধারাবাহিকতায় রাজধানী নেপিদো এবং ইয়াঙ্গুনের রাজপথে সেনাটহল চলছে।

এছাড়া মিয়ানমারের সংসদের নিম্নকক্ষের নবনির্বাচিত সদস্যদের সোমবার প্রথমবার মিলিত হওয়ার কথা থাকলেও অধিবেশন স্থগিত করার ঘোষণা দিয়েছে সেনাবাহিনী।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

গত নভেম্বরে নির্বাচনে অং সান সু চির এনএলডি সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করলেও দেশটির সেনাবাহিনী নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ তোলে। এমনকি দু’দিন আগেও সেনাসমর্থকরা ইয়াঙ্গুনে মিছিল করে।

বিজ্ঞাপন

নবনির্বাচিত সংসদের প্রথম বৈঠক হবার কথা সোমবার, কিন্তু সেনাবাহিনী অধিবেশন স্থগিত করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানায়। শেষ পর্যন্ত সোমবার নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যদের প্রথমবার মিলিত হওয়ার আগেই আটক হলেন ক্ষমতাসীন দলের নেত্রী অং সান সু চি।

এছাড়াও দেশের প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টসহ কয়েকজন নেতাকে আটক করা হয়েছে। ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসি- এনএলডি মুখপাত্র জানিয়েছেন সেনাবাহিনী সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করছে বলে মনে হচ্ছে। এমনকি দেশটির টেলিভিশন সম্প্রচার, ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে সেনাবাহিনী।

২০১১ সাল পর্যন্ত সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণেই ছিল মিয়ানমার। প্রায় ১৫ বছর গৃহবন্দী জীবন কাটিয়েছেন সু চি।

মিয়ানমারে একটি সামরিক অভ্যুত্থানের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের তালিকা চূড়ান্ত করতে যখন মিয়ানমারের সাথে বাংলাদেশের আলোচনা চলছিল ঠিক তখনই সেখানে এমন এক রাজনৈতিক টানাপোড়েন শুরু হলো।