চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সিন্ডিকেটের হাতে জিম্মি সাতক্ষীরার ১০ হাজার সমবায়ী

সিন্ডিকেটের হাতে জিম্মি হয়ে পড়েছেন সাতক্ষীরার ১০ হাজার দুগ্ধ সমবায়ী ও খামারি। তাদের অভিযোগ করেছেন, দুধের নায্য দাম থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন তারা।

আর এ সুযোগে সিন্ডিকেট প্রতিদিন হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা। প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চেয়ে সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচিও পালন করছেন খামারিরা।

সাতক্ষীরায় নিবন্ধিত দুগ্ধ সমবায় সমিতি রয়েছে ২৬টি। এর মধ্যে তালা উপজেলার জিয়ালা নলতা, মহন্দি ঘোষপাড়া, মাছিয়াড়া, যেঠুয়া, খলিলনগরসহ আশপাশের গ্রামে রয়েছে ১৬টি।

সমিতিভুক্ত খামারে ছয় হাজার গাভী থেকে প্রতিদিন দুধ পাওয়া যায় তিন থেকে চার হাজার মেট্রিক টন। স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে এসব দুধ যায় বিসিক শিল্প নগরীতে স্থাপিত মিল্কভিটা দুগ্ধ শিতলীকরণ কেন্দ্রে। এই কেন্দ্রের ব্যবস্থাপনার নেতৃত্বেই সিন্ডিকেট পরিচালিত হচ্ছে বলে অভিযোগ খামারিদের।

সাতক্ষীরা খামারিরা বলেন, দুধ নিয়ে যাওয়ার পর ওরা বিভিন্নভাবে আমার দুধের ভেতর পানি দেওয়ার অজুহাত দিতো।

মিল্কভিটার ল্যাবরেটরিতে এনালাইজার মেশিনে ফ্যাটের পরিমাণ মাপা নিয়েও রয়েছে নানা কারসাজি। এতে প্রতিদিন ঠকছেন খামারিরা।

সাতক্ষীরার আরেক খামারি বলেন, সাতক্ষীরা খামারে আমরা দুধ বিক্রি করলেও ঠিক মতো দুধের দাম পাই না।

মিল্কভিটার দুর্নীতি বন্ধে প্রয়োজনীয় উদ্যোগের কথা জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

সাতক্ষীরা তালা উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান বলেন, আমার কাছে এরকম অভিযোগ এসেছে যে, তারা যেরকম সহোযোগিতা প্রদান করা দরকার তেমন সহোযোগিতা করছে না। এটি আমরা খোঁজ-খরব নিয়েছি এবং কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি।

এসব অনিয়ম ও দুর্নীতি বন্ধের দাবিতে আন্দোলনে নেমেছেন জেলার দুগ্ধ সমবায়ী ও খামারিরা।