চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সিডনিতে ‘ধূমকেতু’ ব্যান্ডের জমকালো আয়োজন

অস্ট্রেলিয়ায় অবস্থানরত বাংলাদেশের স্থানীয় ব্যান্ড ‘ধূমকেতু’। দলটির আয়োজনে সদ্য সমাপ্ত হলো এক পুনর্মিলনী এবং সংগীতানুষ্ঠান। সিডনির শহরতলি চুলোরার লিবার্টি হিল ক্রিশ্চিয়ান সেন্টারে সম্প্রতি এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল।

আয়োজকরা জানান, ধূমকেতুর মুগ্ধকর পরিবেশনায় যেখানে ছিল উপচে পড়া দর্শক যা অনুষ্ঠানের আয়োজকদের বিস্মিত করেছে। ব্যান্ড ম্যানেজার জুনায়েদ জানিয়েছেন, ‘দর্শকদের কাছে এতো ভালো সাড়া পাবেন আশা করেননি।

বিজ্ঞাপন

তার কথা, এমনিতেই কোভিডের কারণে অনুষ্ঠানটি নিয়ে আমরা অনেক দ্বিধা-দ্বন্দ্বের মধ্যে ছিলাম। পরবর্তীতে দর্শকদের স্বতঃস্ফূর্ত টিকিট ক্রয়ের মাত্রা দেখে উৎসাহ দ্বিগুণ বেড়ে যায় ব্যান্ডের সব সদস্যের। আশা করছি, এই বছরের শেষে আরো বড়ো পরিসরে এই ধরণের আরো একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করবো।’

এ ধরণের আয়োজন সিডনিতে এই প্রথম যে টিকিট ক্রয়ের মাধ্যমে শুধুমাত্র একটি স্থানীয় দেশি ব্যান্ড গোটা অনুষ্ঠানজুড়ে এককভাবে সংগীত পরিবেশনা করেছে।

ধূমকেতু ব্যান্ডের সদস্যরা জানান, ‘স্থানীয় উদ্যোক্তারা সচরাচর বাংলাদেশ থেকে গুণী শিল্পীদের আমন্ত্রণ করে নিয়ে আসেন এই ধরণের পাবলিক টিকিটিং ইভেন্টে। লোকাল ব্যান্ড হিসেবে তাই এই আয়োজন আমাদের জন্য কিছুটা চ্যালেঞ্জিং ছিল। কিন্তু দর্শক গ্রহণযোগ্যতা আর প্রশংসার মাত্রা দেখে সেই ধারণা ভুল প্রমাণিত হয়েছে।

আরও জানান, এমনকি একটা পর্যায়ে এসে আমাদের টিকিট ওয়েবসাইট বন্ধ করে দিতে হয়েছে শুধুমাত্র স্থান সংকুলানের আশংকায়। তবে তারা আশা করছেন শিগগির সবার মনের আশা পূরণ করে গান শুনিয়ে যাবেন।

কেয়া এবং রাজের অনবদ্য উপস্থাপনায় শুরু থেকেই অনুষ্ঠানটি প্রাণ পেতে থাকে। ফটোসেশন এবং বাচ্চাদের ফ্যাশন শোয়ের পরে শুরু হয় সংগীতানুষ্ঠান। প্রথমে স্থানীয় শিল্পীদের পরিবেশনায় উপস্থিত দর্শকরা বিমোহিত হয়। এরপর মঞ্চে আসে ধূমকেতু।

একের পর এক জনপ্রিয় সব গান পরিবেশনার মাধ্যমে তারা দর্শকদের নিয়ে যান সুরের মূর্ছনায়। পুরো অনুষ্ঠান জুড়েই উপস্থিত দর্শক স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে ব্যান্ডের গানের সাথে কণ্ঠ মেলান। অনুষ্ঠান শেষে যখন ক্লান্ত-শ্রান্ত দর্শক বাড়ি ফেরে, তখন সেখানে মধ্যরাত।

বিজ্ঞাপন