চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সালাহর ব্যথায় রামোসের ‘নুনের ছিটা’

প্রায় তিন মাস আগে খলনায়কের মতো এক আঘাতে মোহামেদ সালাহর বিশ্বকাপটাই প্রায় শেষ করে দিতে বসেছিলেন সার্জিও রামোস। কিয়েভে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে সেই রাতের পর বৃহস্পতিবার মোনাকোতে আবারও দেখা হল দুজনের। যে কাঁধে ব্যথা দিয়েছিলেন, সালাহর সেই কাঁধে আরেকবার ছুঁয়ে দিয়ে লিভারপুলের মিশরীয় তারকার মনের ব্যথা যেন বাড়িয়ে দিয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদ অধিনায়ক।

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ড্র ও বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার নিতে মোনাকোতে উপস্থিত ছিলেন সালাহ-রামোস। সামনের সারিতে সালাহর পাশে বসেছেন বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের সংক্ষিপ্ত তালিকায় থাকা প্রতিদ্বন্দ্বী লুকা মদ্রিচ। আর পেছনের সারিতে ছিলেন রামোস ও রিয়াল মাদ্রিদ গোলরক্ষক কেইলর নাভাস।

বিজ্ঞাপন

এ বছর উয়েফা বর্ষসেরা ডিফেন্ডারের পুরস্কার জিতেছেন রামোস। সালাহর যে কাঁধে আঘাত দিয়েছিলেন, পুরস্কার নিয়ে আসার পথে সেই কাঁধই আরেকবার ছুঁয়ে দেন রিয়াল অধিনায়ক। সালাহ একবার কাঁধ ফিরিয়ে তাকালেও জবাবে কিছু বলেননি।

কিয়েভের ফাইনালে রামোসের করা ফাউলের কারণে প্রথমার্ধেই মাঠ ছাড়তে হয়েছিল সালাহকে। তার অনুপস্থিতিতে পরে রিয়ালের কাছে ৩-১ গোলে হেরে যায় সালাহর দল লিভারপুল। আর মোনাকোতে লুকা মদ্রিচের কাছে হেরে উয়েফা বর্ষসেরা খেলোয়াড় হওয়া হয়নি মিশর তারকার।

কিয়েভে যদি শিরোপা জিতত লিভারপুল, তাহলে মদ্রিচের জায়গায় সেরার নামটা হতে পারত সালাহর। কিন্তু রামোসের এক ভয়ঙ্কর ট্যাকলই সব ওলট-পালট করে দিয়েছে। তাই দ্বিতীয়বার যখন সালাহর কাঁধ ছুঁয়ে দিয়েছেন রিয়াল ডিফেন্ডার, তখন এ নিয়ে শুরু হয়েছে হাসি-ঠাট্টাও। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকে বলছেন, সালাহর ‘কাঁটা ঘায়ে আরেকবার নুনের ছিটা’ দিয়েছেন লস ব্লাঙ্কোস অধিনায়ক।

বিজ্ঞাপন