চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সালমা-রুমানাদের জন্য ইংলিশ হেড কোচ

নারী দলের হেড কোচ নিয়োগ চূড়ান্ত হওয়ার পথে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সূত্র বলছে, ইংল্যান্ডের কেউ হতে চলেছেন সালমা-রুমানাদের পরবর্তী কোচ।

বিসিবির সংক্ষিপ্ত তালিকায় আছেন দুজন ইংলিশ কোচ। তাদের মধ্যে থেকেই বেছে নেয়া হবে একজনকে। এ মাসেই বিসিবি কোচের সঙ্গে চুক্তি সম্পন্ন করবে। হোড কোচের মতামতের ভিত্তিতে নিয়োগ দেয়া হবে কোচিং স্টাফের বাকি সদস্যদের।

বিজ্ঞাপন

অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষে মার্চে মেয়েদের হেড কোচ অঞ্জু জৈনকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয় বিসিবি। কোচিং স্টাফের বাকি সদস্যদের সঙ্গেও চুক্তির মেয়াদ বাড়ায়নি বোর্ড। হেড কোচ, সহকারী কোচ, ট্রেনার, ফিজিও সবাই ছিলেন ভারতীয়।

বিজ্ঞাপন

এবার ইংলিশ কোচের দিকে ঝুঁকছে বিসিবি। ইংলিশ কোচ অতীতেও পেয়েছে টিম টাইগ্রেস। অঞ্জু জৈনের আগে সালমা-রুমানাদের হেড কোচের দায়িত্বে ছিলেন সাবেক ইংলিশ ক্রিকেটার ডেভিড ক্যাপেল।

ক্যাপেল কাজ করেন দেড় বছর। ২০১৭ সালের অক্টোবরে দলের দায়িত্ব নেন। ২০১৮ সালের মে মাসে সাউথ আফ্রিকা সফর ছিল তার শেষ অ্যাসাইনমেন্ট। পরে নিয়োগ দেয়া হয় ভারতীয় নারী দলের সাবেক ক্রিকেটার অঞ্জুকে। প্রথম অ্যাসাইনমেন্টেই বাজিমাত করেন তিনি। বাংলাদেশ জেতে স্বপ্নের এশিয়া কাপ।

ছেলেদের ক্রিকেটের মতো মেয়েদের বেলাতেও দেখা যাচ্ছে কোচ বদলের হিড়িক। গত ছয় বছরে তিনজন বিদেশি ও একজন দেশি হেড কোচ কাজ করেছেন সালমা-রুমানাদের সঙ্গে।

২০১৪ সালে শ্রীলঙ্কান কোচ চম্পকা গামাগে দায়িত্ব নেন। ২০১৬ সালের মে মাসে দুই বছরের মেয়াদ শেষ হলে আর চুক্তি বাড়ায়নি বিসিবি। অন্তর্বর্তী কোচ হিসেবে দায়িত্ব নেন সারোয়ার ইমরান। আয়ারল্যান্ড সফরে দলের সঙ্গে ছিলেন তিনি। পরে আরও দুজন বিদেশি হেড কোচ কাজ করেন টিম টাইগ্রেসের সঙ্গে।