চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সাভারে গণধর্ষণের শিকার নারী পোশাক শ্রমিক

সাভারে এক নারী পোশাক শ্রমিক গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। ঘটনায় জড়িত তিনজনের নাম উল্লেখ করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন নির্যাতিতা।

গত ২২ জুন রাতে সাভারের তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের হেমায়েতপুরের জয়নাবাড়ি এলাকায় একটি ভাড়া বাড়িতে ওই নারীকে গণধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

পুলিশ জানায়, ওইদিন রাতে (২২ জুন) কারখানায় কাজ শেষ করে ওই নারী শ্রমিক নিজ ভাড়া বাসায় ফিরছিলেন। সেসময় তার পূর্ব পরিচিত যুবক তারেক ও রাব্বী তাকে রাস্তা থেকে উঠিয়ে নিয়ে তিনজনে গণধর্ষণ করে। ধর্ষণের বিষয়টি কাউকে জানালে তাকে হত্যা করে লাশ গুম করারও হুমকি দেয় তারা।

বিজ্ঞাপন

পরে ওই নারী শ্রমিক ভয়ভীতির তোয়াক্কা না করে রাতে সাভার মডেল থানায় তিনজনের নাম উল্লেখ করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি গণধর্ষণের মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তাৎক্ষণিক ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত তিন ধর্ষণকারীকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো সিরাজগঞ্জের বেলকুচি থানার দেলুয়া মধ্যপাড়ার শামীম হোসেনের ছেলে তারেক রহমান (২১), নড়াইলের কালিয়া থানার ফিরোজ কাজীর ছেলে রাব্বি (২০) ও অমিত হাসান (২২)।

এরা সবাই জয়নাবাড়ি এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকত। গণধর্ষণের শিকার নারীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে।

সাভার মডেল থানার ট্যানারি পুলিশ ফাঁড়ির আইসি জাহিদুল ইসলাম বলেন, আসামীদের বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতে পাঠানো হবে। ধর্ষণের শিকার ওই নারী হেমায়েতপুর এলাকায় একটি পোশাক কারখানায় কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করতেন।