চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শ্রীলঙ্কার কাছে ১ রানে হারল বাংলাদেশের যুবারা

৪ বলে দরকার ছিল মাত্র ২ রান। রিপন মন্ডল ব্যাটে বল লাগিয়েই দিলেন ছুট। অপর প্রান্তে পৌঁছানোর আগে সরাসরি থ্রো’তে তার স্টাম্প ভেঙে দিলেন পাথিরাজা। ১ রানে কষ্টের হার সঙ্গী হল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের। শ্রীলঙ্কা সফরে টানা দুই যুব ওয়ানডে হেরে সিরিজ খোয়ানোর শঙ্কায় জুনিয়র টাইগাররা।

জোড়া উইকেট হারানোর পর শেষ জুটি বাংলাদেশকে দেখায় আশা। জয়ের খুব কাছে গিয়ে ফিরে আসতে হয় টাইগার যুবাদের।

ডাম্বুলায় স্বাগতিক যুবাদের দেয়া ২২৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৩ বল আগে ২২৭ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ। পাঁচ ম্যাচ সিরিজের তৃতীয়টি আগামী বুধবার।

ওপেনার মাহফুজুল ইসলাম রবিন ৭৫ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন। সেঞ্চুরির আশা জাগিয়ে তাকে ফিরতে হয় আম্পায়ারের বিতর্কিত সিদ্ধান্তে।

বিজ্ঞাপন

লঙ্কান পেসার পাথিরানার ডেলিভারি লেগস্টাম্প দিয়ে বেরিয়ে যাওয়ার মুখে লাগে মাহফুজুলের প্যাডে। আম্পায়ার আঙুল তুলে দেন। আফসোস নিয়ে অনেকক্ষণ ক্রিজে দাঁড়িয়ে থাকেন টাইগার ওপেনার।

এরপরই খেলার মোড় ঘুরতে থাকে। টানা উইকেট হারালে সহজ ম্যাচ হয়ে যায় কঠিন। যখন বলে বলে রান তোলার চ্যালেঞ্জ যুবাদের সামনে, তখন পরপর দুই বলে নাঈমুর রহমান (৬) ও আরিফুল ইসলামকে (২৩) সাজঘরে পাঠান লঙ্কান যুবা পাথিরানা।

শেষ জুটির সামনে তখন ১৪ বলে ১৭ রানের চ্যালেঞ্জ। কঠিন সমীকরণ প্রায় মিলিয়ে ফেলেছিলেন দুজনে। ম্যাচ টাই করা চেষ্টায় রিপন রান আউট হলে ১ রানের হতাশার হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় সফরকারীদের। শেষে দারুণ ব্যাট করতে থাকা আশিকুর জামান ১১ রানে অপরাজিত থেকে যান।

সিরিজের প্রথম ম্যাচে ২২৯ রানের লক্ষ্যই ছিল বাংলাদেশের। সেই ম্যাচে সফরকারীরা হারে ৪২ রানের বড় ব্যবধানে। সোমবার ওপেনিং জুটিতে আসে ৫৭ রান। যেখানে ইফতেখার হোসেনের অবদান ৩৬ রান। পাঁচ নম্বরে নেমে অধিনায়ক মেহরব হোসেন করেন ৩৩ রান।

বিজ্ঞাপন