চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘লেভানডোভস্কি অসাধারণ, কিন্তু মেসি অন্য গ্রহের’

যুদ্ধ আগেই শুরু হয়ে গেছে। দুই পাশে দুই প্রধান সেনাপতি- একদিকে লিওনেল মেসি, অন্যজন রবার্ট লেভানডোভস্কি। দুই সেনানায়কের ঘাড়ে চেপে একে অন্যকে ঘায়েলের চেষ্টা করবে বার্সেলোনা ও বায়ার্ন মিউনিখ। মঞ্চ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার। ম্যাচ বাংলাদেশ সময় শুক্রবার রাত ১টায়।

বর্তমান ফুটবলের দুই সেরা-মহাসেরা ফুটবলারকে খুব কাছে থেকে দেখার অভিজ্ঞতা আছে আর্তুরো ভিদালের। বায়ার্নে থাকাকালে পোলিশ ফরোয়ার্ড লেভানডোভস্কি ছিলেন তার সতীর্থ, আর মেসি তার বর্তমান দল বার্সেলোনার অধিনায়ক। কাছে থেকে দেখার অভিজ্ঞতা থেকেই চিলিয়ান মিডফিল্ডার বলছেন, বায়ার্ন তারকা দারুণ ফর্মে থাকতে পারেন ঠিকই, তাই বলে তিনি মোটেও আর্জেন্টাইন মহাতারকার সমকক্ষ নন!

বিজ্ঞাপন

লিসবনে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এক লেগের কোয়ার্টার ফাইনালে বার্সা-বায়ার্নের ম্যাচকে বলা হচ্ছে ২০১৯-২০ মৌসুমের সবচেয়ে আকর্ষণীয় লড়াই। সেই ম্যাচ নিয়ে কথার লড়াইয়ের কেন্দ্রে রাখা হয়েছে মেসি ও লেভানডোভস্কিকে। দুজনই ফর্মে আছেন, তবে তাদের নিজ নিজ দলের অবস্থা ভিন্ন।

দুই লেগ মিলিয়ে নাপোলিকে ৪-২ গোলে হারিয়ে বার্সা কোয়ার্টার পর্যন্ত এসেছে ঠিকই, কিন্তু দলটির সত্যিকারের পারফরম্যান্সের অবস্থা বেশ করুণ। লা লিগায় রানার্সআপ হওয়া কাতালানরা এপর্যন্ত এসেছে কেবল মেসির জাদুকরী পারফরম্যান্সে। নাপোলির বিপক্ষেও দ্বিতীয় লেগে ডিফেন্ডারদের নাকানিচুবানি খাইয়ে চোখ জুড়ানো এক গোল করে ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী ফরোয়ার্ড বুঝিয়ে দিয়েছেন, তিনি জ্বলে উঠলে কপালে দুঃখ আছে বায়ার্নের। আর যদি নিষ্প্রভ থাকেন, তাহলে নিজের দলেরই বারোটা বাজবে!

বিজ্ঞাপন

উল্টো অবস্থা বায়ার্নের। গত কয়েক চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অনুজ্জ্বল থাকা দলটাকে মনে হচ্ছে এবার শিরোপা জয়ের সত্যিকার যোগ্য এক দল। দ্বিতীয় রাউন্ডে কচিকাঁচার চেলসি পাত্তাও পায়নি বাভারিয়ানদের কাছে। দুই লেগ মিলিয়ে তারা ৭-১ গোলে এক প্রকার পিষে ফেলেছে লন্ডনের প্রতিপক্ষদের। রোলার চালানোর দায়িত্বটা ভালোভাবেই সেরেছেন লেভানডোভস্কি। এবারের ৭ ম্যাচে ১৩ গোল করা ’লন্ডভন্ডস্কি’ কোয়ার্টারে বার্সার সত্যিকারের চ্যালেঞ্জ।

দুজনের ফর্ম নিয়ে নিশ্চিত দুশ্চিন্তায়-ভাবনায় বার্সা আর বায়ার্ন। ম্যাচের আগে কথার যুদ্ধে একে অপরকে ঘায়েলের চেষ্টা হয়েছে। বায়ার্ন কিংবদন্তি জার্ড মুলার বলেছেন কে এখন সেরা সেটা লেভানডোভস্কি মাঠেই মেসিকে বুঝিয়ে দেবেন। আর বার্সার হয়ে সেই কথার জবাব দিয়েছেন লেভার এককালের সতীর্থ ভিদাল। ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে বলা সাবেক সতীর্থের কথা শুনলে খারাপই লাগতে পারে পোলিশ তারকার।

‘লেভানডোভস্কি অসাধারণ, খুবই বিপজ্জনক, ক্লান্তিহীন একজন গোলস্কোরার। আমি ওকে তিন বছর কাছ থেকে দেখেছি, দেখেছি কীভাবে নিজেকে প্রস্তুত করেছে। তাকে থামানো বেশ কঠিন। কিন্তু মেসির সঙ্গে তার তুলনা করা উচিৎ না, কারণ মেসি অন্য গ্রহের। তবে হ্যাঁ, লেভা সুয়ারেজের মতোই সেরা এক স্ট্রাইকার।’

বার্সা কোচ কিকে সেতিয়েনও সমর্থন করেছেন ভিদালকে, ‘লেভানডোভস্কি দারুণ ফুটবলার, তবে সে মেসির পর্যায়ের না। এই মুহূর্তে লেভানডোভস্কি দারুণ সময় পার করছে, আর দলের কাছ থেকেও সে দারুণ পাস পাচ্ছে, যা আমাদের ভোগাতে পারে। কিন্তু আমরা নাপোলির বিপক্ষে মেসির খেলা দেখেছি। বিষয়টা ভালো যে আমরা এই মুহূর্তে এমন খেলোয়াড়দের খেলা উপভোগ করতে পারছি।’