চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রোজিনা ইসলামের জন্য প্রেসক্লাবে বিক্ষোভ কর্মসূচি

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের করা ‘অফিশিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্ট’ মামলায় গ্রেপ্তার সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের মুক্তির দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধনসহ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে সাংবাদিকরা।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই বিভিন্ন সংবাদিক সংগঠন বিক্ষোভ কর্মসূচি করেছেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

কর্মসূচিতে উপস্থিত হয়ে সাংবাদিক নেতা ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেন, কালা কানুনের জন্য দেশের মত প্রকাশের স্বাধীনতা ব্যাহত হচ্ছে। ভীতিকর অবস্থার মধ্যে থেকে কখনো মুক্ত ও স্বাধীন সাংবাদিকতা হতে পারে না। গণমাধ্যম যদি মুক্ত ও স্বাধীন না হয় তাহলে গণতন্ত্রও প্রশ্নবিদ্ধ হবে, গণতন্ত্র বিঘ্নিত হবে। তাই দেশের উন্নয়নের স্বার্থে, যেভাবে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশের ভাবমূর্তি বিদেশে উন্নত হয়েছে, আমরা চাই আর কোনো কুচক্রী মহল যেন ষড়যন্ত্র সৃষ্টি করতে না পারে।

বিক্ষোভ কর্মসূচিতে বক্তারা বলেন, রোজিনা ইসলামের মামলা ডিবিতে হস্তান্তর করে সরকার ও সাংবাদিকদের মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দেওয়া হয়েছে। আমলাতন্ত্রের কর্মকর্তাদের একটি কুচক্রী মহল সরকার ও সাংবাদিকদের মুখোমুখি করেছে।

বিজ্ঞাপন

এসময় যারা রোজিনা ইসলামকে নিযাতন করেছে তাদের চিহ্নিত করে দ্রুত বিচারের দাবিও করেন তারা।

গত সোমবার পেশাগত দায়িত্ব পালনের জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে গেলে দৈনিক প্রথম আলোর সিনিয়র সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে পাঁচ ঘণ্টার বেশি আটকে রেখে হেনস্তা করা হয়। একপর্যায়ে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে কিছু নথি সরানোর অভিযোগ এনে পুলিশ ডাকা হয়েছে। রাত সাড়ে আটটার দিকে পুলিশ তাকে শাহবাগ থানায় নিয়ে যায়।

মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের উপসচিব ডাঃ মােঃ শিব্বির আহমেদ ওসমানী শাহবাগ থানায় তার বিরুদ্ধে মন্ত্রণালয়ের পক্ষে অভিযোগ দায়ের করেন। পরে তার অভিযোগটি মামলা আকারে রুজু করে পুলিশ। পুলিশ জানায়, তাকে সেই মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।