চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রিয়াল চায় ছাড়তে, বেল চান থাকতে!

এজেন্টের মাধ্যমে গ্যারেথ বেলকে বার্তা পাঠিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ, ‘নিজ রাস্তা খুঁজে নাও!’ সেই বার্তা পেয়ে ওয়েলস ফরোয়ার্ড সোজাসাপ্টা জানিয়ে দিয়েছেন, চুক্তি শেষ করে তবেই মাদ্রিদ ছাড়বেন। চোখের মণি থেকে গলার কাঁটা হয়ে ওঠা বেলের বার্তা এখন মাথাব্যথার কারণ হয়ে উঠেছে লস ব্লাঙ্কোসদের জন্য!

বিজ্ঞাপন

আগামী মৌসুমে নতুন করে দল সাজানোর জন্য লম্বা তালিকা তৈরি করেছেন রিয়াল কোচ জিনেদিন জিদান। তালিকায় আছে এডেন হ্যাজার্ড, পল পগবা থেকে শুরু করে আরও অনেক নামী-দামি খেলোয়াড়ের নাম। ক্লাব সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন জিদানকে, সাধ্য থাকলে তালিকা মতো খেলোয়াড় সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে আনবেন।

কিন্তু বর্তমান দলবদলের বাজার যেমনটা চড়া, পছন্দমতো খেলোয়াড় কিনতে হলে বড় রকমের অর্থ ঢালতে হবে রিয়ালকে। সেজন্য বর্তমান খেলোয়াড়দের থেকে কাউকে না কাউকে ভালো দামে বিক্রি করতে হবে। বিক্রির তালিকাও তৈরি করা আছে জিদানের, যেখানে সবার উপরের নামটা গ্যারেথ বেলের!

ছয় মৌসুমের বেশিরভাগ সময় মাঠের খেলার চেয়ে নিজের চোটের পেছনে খরচ করেছেন বেল। চলতি খরার সময়টাতেও তাকে দলে পাচ্ছেন না জিদান। চোটেই পড়ে আছেন। বিষয়টা এখন এমন, বেলকে নিয়ে সমস্যার চেয়ে সমাধানের পেছনেই সময় ব্যয় করছে রিয়াল।

সমাধানটা হচ্ছে না বেলের জন্যই। সম্প্রতি তার এজেন্টকে বেলের জন্য দল দেখতে বলেছিল রিয়াল। কিন্তু বেলের কানে সে কথা তুলতেই রাগী ভাষায় না বলে দিয়েছেন সামনের জুলাইয়ে ৩০ বছর বয়সে পা দিতে চলা ওয়েলস ফরোয়ার্ড। তার সোজা কথা, ২০২২ পর্যন্ত লস ব্লাঙ্কোসদের হয়ে খেলতে চান তিনি।

বিজ্ঞাপন

বেলকে নিয়ে এখানেই ঝামেলার শেষ নয়। শুরুতে কয়েকটি ক্লাব ইচ্ছা দেখালেও এখন চুপ করে আছে সেই ক্লাবগুলো। বেলকে চাওয়ার ইচ্ছা দেখিয়ে রিয়ালের কাছে কেউ খোঁজও করেনি। আর ওয়েলস তারকার জন্য যে দাম হাঁকিয়েছিল রিয়াল তার জন্য বিন্দুমাত্র রাজী নয় এ ক্লাবগুলো।

সমস্যা আরও আছে। তা বেলের আকাশচুম্বী বেতন। বছরে রিয়ালের কাছ থেকে গুণে গুণে ১৫ মিলিয়ন ইউরো বেতন পান এ তারকা। যদি বেলকে বিক্রিই করতে না পারে রিয়াল তাহলে বেতনের সঙ্গে সমপরিমাণ কর যোগ করে বছরে ৩০ মিলিয়ন ইউরো খরচ গুণতে হবে ক্লাবটিকে। বোনাসসহ আনুষঙ্গিক খরচ তো আছেই। পাশাপাশি বেলের চোটের ব্যয়ভার বহন করতে হয় ক্লাবকেই!

চোটাক্রান্ত একজন খেলোয়াড়ের জন্য আকাশচুম্বী ট্রান্সফার ফী ও বেতন কোনটাই বহন করতে চায় না অন্য ক্লাবগুলো। তাই রিয়াল না পারছে তাকে গিলতে, না পারছে গেলাতে! বাধ্য হয়ে ধৈর্য ধরার পন্থা নিয়েছে ক্লাবটি। মৌসুম শেষ হতে বাকি আছে এখনো এক মাস। রিয়ালের আশা, এরইমধ্যে কেউ না কেউ রাজী হবেই বেলকে দলে টানতে!

Bellow Post-Green View