চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রাজধানীতে অজ্ঞান পার্টির ১৫ সদস্য গ্রেফতার

ঈদ ও রোজাকে সামনে রেখে রাজধানীতে অনেকটা নিবিঘ্নে এক শ্রেণীর প্রতারক চক্র নিত্য নতুন প্রতারণার মাধ্যমে মানুষের সর্বস্ব লুট করত। এমনই এক চক্রের ১৫ জন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের গোয়েন্দা (পশ্চিম) বিভাগ ও সিরিয়াস ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগ।

পৃথক পৃথক বিশেষ অভিযানের মাধ্যমে অজ্ঞান পার্টির এসব সদস্যকে শনিবার রাতে রাজধানীর জুরাইন, মগবাজার, ফকিরাপুল ও মৌচাক এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয় বলে পুলিশের যুগ্ম কমিশনার আব্দুল বাতেন জানিয়েছেন। রোববার দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক ব্রিফিংয়ে তিনি এসব বলেন।

জুরাইন থেকে যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে তারা হলো- মিজানুর রহমান, আলমগীর হোসেন, ইদ্রিস ব্যাপারী, খোকন মোল্লা, আবুল কালাম মিয়া, বাবলু পাটোয়ারী ও শাহ্ আলম শেখ।

মগবাজার থেকে যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে তারা হলো- আব্দুল মান্নান, রিপন, শরিফ ও হুমায়ূন কবির।

বিজ্ঞাপন

ফকিরাপুল থেকে আব্দুর রহমান, ইউনুস মিয়া ও শ্যামল এবং মৌচাক থেকে মামুনুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়।

আব্দুল বাতেন বলেন, তারা চেতনানাশক ট্যাবলেট বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্যে বিশেষ করে ডাবের পানি, খেজুর, চা, কফি ও তরল দ্রব্যের সঙ্গে মিশিয়ে নিজেদের হেফাজতে সংরক্ষণ করে।

রোজায় ইফতারির আগে তারা যাত্রী বেশে বিভিন্ন গনপরিবহনে হকার হিসেবে উঠে।

তাছাড়া বাসস্ট্যান্ড, রেলস্টেশন, লঞ্চ টার্মিনালসহ জনসমাগমস্থলে নিরীহ যাত্রী বা পথচারীদের মধ্যে কোন ব্যক্তিকে টার্গেট করে তার সাথে সখ্য গড়ে তোলে। সখ্যের একপর্যায়ে চেতনানাশক ট্যাবলেট মিশ্রিত খাবার টার্গেটকৃত ব্যক্তিকে কৌশলে খাইয়ে অজ্ঞান করে টাকা-পয়সা ও মূল্যবান দ্রব্যসহ সর্বস্ব লুট করে পালিয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন