চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রংপুরের নেটে মিলল বাংলাদেশের ‘রশিদ খান’

সিলেট থেকে: নেট বোলার হিসেবে এসেছিলেন রংপুর রাইডার্সের অনুশীলনে। কোচদের চোখে পড়ে গেলেন দারুণ বোলিংয়ে। সম্ভাবনা দেখে টিম ম্যানেজমেন্ট অন্তর্ভুক্ত করে নিয়েছে মূল স্কোয়াডে। এখন বিপিএলে খেলতে নামার অপেক্ষায় ১৬ বছর বয়সী লেগস্পিনার মিনহাজুল আবেদিন আফ্রিদি। রংপুরের বোলিং কোচ মোহাম্মদ রফিক এই কিশোরকে তুলনা করলেন আফগান লেগস্পিনার রশিদ খানের সঙ্গে।

বৃহস্পতিবার সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে রংপুরের ঐচ্ছিক অনুশীলনে অসাধারণ বোলিং করেছেন চট্টগ্রাম থেকে আসা আফ্রিদি। অনুশীলনে ছিলেন গত ম্যাচে একাদশের বাইরে থাকা সব ক্রিকেটার। কিন্তু কোচ, টিম ম্যানেজমেন্টের দৃশ্যপটে মধ্যমণি হয়ে ছিলেন ওই কিশোরটি।

দুপুরে নেট সেশন শেষ করে টিম হোটেলে ফিরে যাওয়ার জন্য ব্যাগ গোছাচ্ছিলেন সবাই। শেষ মুহূর্তে হঠাৎ করেই রবি বোপারাকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়ে আফ্রিদির হাতে বল তুলে দেন টম মুডি। হেড কোচ আলাপ করেন বাংলাদেশের সাবেক বাঁহাতি স্পিনার রফিকের সঙ্গেও। তাদের শারীরিক ভাষা দেখে মনে হয়েছে ম্যাচে কীভাবে, কী করতে হবে সেটিই বুঝিয়ে দিচ্ছেন তরুণ লেগস্পিনারকে।

তার আগেই চ্যানেল আই অনলাইনের মুখোমুখি হয়ে টেস্টে বাংলাদেশের প্রথম ১০০ উইকেট শিকারি রফিক জানালেন, আফ্রিদির মাঝে যে সম্ভাবনা দেখেছেন সেসবের কথা।

‘হতে পারে ছেলেটা নতুন এসেছে। তবে এটা কিন্তু একটা চমক হবে যদি সে খেলতে পারে। ভালো দিক হচ্ছে ছেলেটা কথা শোনে এবং কাজ করে। তার যদি এখানে অভিষেক হয়, তাহলে পরের বছরের মধ্যেই সে কিন্তু ব্যাটসম্যানদের জন্য আতঙ্কে পরিণত হবে।’

‘আমি ওর ভেতর যা গুণ দেখছি, বাংলাদেশের ক্রিকেটকে অনেকদূর এগিয়ে নিয়ে যাবে। আমি এতটুকু নিশ্চয়তা দিতে পারি, ও যদি একটা বছর খাটে, তাহলে এক-দেড় বছরের মধ্যে বাংলাদেশ দলে খেলবে। তাতে শুধু এই ছেলেটার ভাগ্য খুলবে না, আমি মনে করি বাংলাদেশের ভাগ্যও অনেকদূর নিয়ে যাবে।’ একটানে বলে চলেন রফিক।

বিপিএলে ঢাকা ডায়নামাইটসে খেলা অফস্পিনার আলিস আল ইসলাম উঠে এসেছেন নেট থেকেই। অভিষেক ম্যাচে করে বসেন হ্যাটট্রিক। ৪ উইকেট নিয়ে জেতান দলকে। সেই উদাহরণ টেনে রফিক বললেন, ‘তাকে (আফ্রিদি) একটু সময় দিতে হবে। ভালো বোলারও ছয় খাচ্ছে। এখন ওকে একটু ট্রাই করে দেখি। ঢাকা যেটা করেছে, ওই ছেলে (আলিস) ফিল্ডিংয়ে দুটি ক্যাচ ছাড়লেও কিন্তু ম্যাচ জিতিয়ে দিয়েছে। আমি মনে করি ওর থেকে ভালো হবে আফ্রিদি।’

আলিস হুট করে বিপিএল চলে আসলেও আফ্রিদির বিসিবির অধীনে একটি ম্যাচে বোলিং করার অভিজ্ঞতা আছে। গত ৩১ অক্টোবর চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বিসিবি একাদশের তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে ৩ ওভার বোলিং করে ১১ রানে নেন এক উইকেট। নিজের দ্বিতীয় ওভারে গুগলিতে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন পিটার মুরকে। সেই তথ্য রংপুর কর্তৃপক্ষের অজানা থাকলেও নেটে বোলিং যে ছিল চোখে লেগে থাকার মতো। তাতেই পেয়ে যাচ্ছেন ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন মাশরাফী-গেইল-ভিলিয়ার্সদের দলে খেলার, সতীর্থ হওয়ার সুযোগ।

আফ্রিদিকে স্কোয়াডে রাখার প্রসঙ্গে রংপুরের ম্যানেজার আনোয়ারুল ইকবাল মিতু চ্যানেল আই অনলাইনকে বললেন, ‘ওকে আমরা নিয়ে এসেছিলাম নেট বোলার হিসেবে। নেটে যখন বল করল, কোচ টম মুডি ও রফিক ভাই জানাল ছেলেটার মধ্যে সম্ভাবনা আছে। ক্রিকেট বোর্ড যখন একটা সুযোগ দিল ড্রাফটের বাইরে থেকে যেকোনো একজন খেলোয়াড় নিতে পারব, আর আফ্রিদিও খুব ভালো করছিল, তাই আমরা চিন্তা করলাম টিমে নিয়ে নেই। নেট বোলার হিসেবে না, স্কোয়াডের সদস্য হিসেবেই সে এখন আমাদের সঙ্গে।’

মিরপুরে রংপুরের নেটে দারুণ বোলিং করে অস্ট্রেলিয়ান কোচ টম মুডিকে মুগ্ধ করেছেন ১৪ বছর বয়সী আরেক লেগস্পিনার তানভির রহমান। খালি নেটে তানভিরের বোলিং মোবাইলে ধারণ করে মুডি পোস্ট করেন ইনস্টাগ্রামে। সেই ভিডিও পাঠান এক সময়কার অজি টিমের সতীর্থ শেন ওয়ার্নের কাছেও। রংপুরের ম্যানেজার মুডির বরাত দিয়ে জানালেন, তানভিরের বোলিং দেখে খুবই প্রশংসা করেছেন সর্বকালের সেরা লেগস্পিনার ওয়ার্ন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলানোর উপযোগী একজন লেগস্পিনার অনেকদিন ধরেই খুঁজছে বাংলাদেশ। সম্প্রতি আলোচনায় আসা কয়েকজন কিশোর দেখাচ্ছেন নতুন আশা। সঠিক পরিচর্যা আর ম্যাচ খেলার সুযোগ পেলে কেবল রশিদ খান নয়, ভবিষ্যৎ শেন ওয়ার্নও হয়ত উঠে আসবে এই বাংলাদেশ থেকেই!