চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

যে নায়কদের প্রথম নায়িকা ছিলেন কবরী

কবরীর প্রথম ছবি ‘সুতরাং’। প্রথম ছবি দিয়েই তার সাফল্যের শুরু। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকানোর প্রয়োজন পড়েনি। মিষ্টি হাসি আর অভিনয়ের নৈপুণ্য দিয়ে তিনি মাতিয়ে রেখেছিলেন দর্শক। ভক্তদের উপহার দিয়েছেন অসংখ্য সফল ছবি। জুটি বেঁধে কাজ করেছেন বহু তারকার সঙ্গে। বিশেষ করে সিনেমায় রাজ্জাক-কবরী মানেই হিট, এমনই চিত্র ছিল তৎকালীন ঢালিউডে।

পর্দা কাঁপানো অনেক অভিনেতাই তাদের প্রথম ছবিতে নায়িকা হিসেবে পেয়েছেন কবরীকে। জাফর ইকবাল, উজ্জ্বল, ফারুক, আলমগীর আর সোহেল রানার প্রথম নায়িকা ছিলেন কবরী। এক নজরে জেনে নিন ছবিগুলো সম্পর্কে:

জাফর ইকবাল: বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের আগে জাফর ইকবাল চলচ্চিত্র জগতে পা রাখেন। তার অভিনীত প্রথম ছবির নাম ‘আপন পর’। এই ছবিতে তার বিপরীতে অভিনয় করেন কবরী।

বিজ্ঞাপন

উজ্জ্বল: ১৯৭০ সালে সুভাষ দত্ত পরিচালিত ‘বিনিময়’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে চলচ্চিত্রাঙ্গণে প্রবেশ করেন। প্রথম চলচ্চিত্রে তার বিপরীতে অভিনয় করেন কবরী। এরপর নানা সময়ে কবরীর সঙ্গে ‘কাঁচের স্বর্গ’, ‘বলাকা মন’ ও নিজেরে হারায়ে খুঁজি ছবিতে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন উজ্জ্বল ও কবরী।

ফারুক: ১৯৭১ সালে এইচ আকবর পরিচালিত ‘জলছবি’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে বাংলা চলচ্চিত্রে আগমন করেন। তার বিপরীতে নায়িকা হিসেবে কবরী অভিনয় করেন। এরপর ‘সুজন সখী’, ‘সারেং বৌ’, ‘দিন যায় কথা থাকে’, ‘তৃষ্ণা’, ‘আশা’, ও ‘আরশিনগর’ ছবিতে কবরীর সঙ্গে জুটি বেঁধে কাজ করেছেন ফারুক ও কবরী।

আলমগীর: আলমগীরের চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় ১৯৭৩ সালে ‘আমার জন্মভূমি’ দিয়ে। এই ছবিতে ছিলেন কবরী। এছাড়াও কবরী ও আলমগীর একসঙ্গে কাজ করেছেন গুন্ডা, কসাই, লাভ ইন সিমলা ছবিতে।

সোহেল রানা: কাজী আনোয়ার হোসেন এর বিখ্যাত কাল্পনিক চরিত্র মাসুদ রানা সিরিজের একটি গল্প অবলম্বনে ‘মাসুদ রানা’ চলচ্চিত্রে নায়ক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন সোহেল রানা। এই ছবিতে তার সঙ্গে অভিনয় করেছেন কবরী। এরপর তাদেরকে একসঙ্গে দেখা গেছে ‘গোপন কথা’ ও ‘রাজা সূর্য খাঁ’ ছবিতে।

বিজ্ঞাপন