চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

যুক্তরাষ্ট্রে কমছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা

বিজ্ঞাপন

চীন থেকে শুরু হলেও বিশ্ব মহামারী করোনাভাইরাসের কেন্দ্রস্থল এখন যুক্তরাষ্ট্র। মৃত্যু এবং আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকলেও গত ২৪ ঘণ্টায় যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যু হার কমে ২৪ শতাংশে নেমেছে। এদিন দেশটিতে মারা গেছে ৭৫০ জন। আর সারাবিশ্বে মৃত্যু তিন লাখের কাছাকাছি (২ লাখ ৮৩ হাজার ৮৬০)।

আশার মুখ দেখতে থাকলেও রোববার পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে মোট মৃত্যু হয়েছে প্রায় ৯০ হাজার (৮০ হাজার ৭৮৭) দেশটিতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ লাখ ছাড়িয়েছে, যা সারাবিশ্বের মোট আক্রান্তের এক তৃতীয়াংশ।

pap-punno

বিশ্বে মোট করোনায় আক্রান্ত এখন প্রায় ৪২ লাখ (৪১ লাখ ৮০ হাজার ৩০৩), আর মৃত্যুবরণ করেছে তিন লাখের কাছাকাছি মানুষ।

আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় ৭৫০ জন মারা গেছে। যেখানে মৃত্যু হার ১ মে ছিল ২৭ দশমিক ৮৭ শতাংশ তা ১০ দিনে কমে এখন ২৩ দশমিক ৯৬ এসে দাঁড়িয়েছে।

Bkash May Banner

গত একদিনে মোট আক্রান্ত হয়েছে ২০ হাজার ৩২৯ জন। সব মিলিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ লাখ ৬৭ হাজার৬৩৮ জন। সুস্থ হয়েছে ২ লাখ ৫৬ হাজার ৩৩৬ জন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১০ লাখ ৩০ হাজার ৫১৫ জন। এদের মধ্য ১৬ হাজার ৫১৪ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

করোনাভাইরাস বিস্তারের আশঙ্কা সত্ত্বেও যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি অঙ্গরাজ্যের অর্ধেকেরও বেশি এখন লকডাউনের পদক্ষেপ শিথিলের কথা বিবেচনা করছে।

এদিকে, করোনায় যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্য সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অন্যান্য অঙ্গরাজ্যের চেয়ে নিউইয়র্কে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা অনেক বেশি।

নিউইয়র্কে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৪৫ হাজার ৪০৬ এবং মারা গেছে ২৬ হাজার ৮১২ জন। ওই অঙ্গরাজ্যে করোনার অ্যাক্টিভ কেস ২ লাখ ৬০ হাজার ৪৯৪টি।

গত ৩১ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম প্রাণঘাতী করোনার উপস্থিতি ধরা পড়ে। এখন পর্যন্ত বিশ্বের ২১২টি দেশে এই ভাইরাসের প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে।

বিজ্ঞাপন

Bellow Post-Green View
Bkash May offer