চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মেয়েদের ঘরোয়া ক্রিকেট নভেম্বরে

জাতীয় দলের শ্রীলঙ্কা সফর স্থগিত হওয়ায় ঘরোয়া ক্রিকেট ফেরাতে উদ্যোগী বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সব ঠিক থাকলে আগামী মাসেই বিসিবির পৃষ্ঠপোষকতায় টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্টে দেখা যাবে তামিম-মুশফিকদের। সালমা-রুমানাদের মাঠে ফেরার অপেক্ষাও খুব বেশি দীর্ঘ হচ্ছে না। নভেম্বরে মেয়েদের ঘরোয়া লিগ আয়োজনের কথা ভাবছে বোর্ড।

বিসিবি পরিচালক ও উইমেনস উইং প্রধান শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল চ্যানেল আই অনলাইনকে জানিয়েছেন আগামী নভেম্বরেই মেয়েদের খেলা শুরু হবে।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেছেন, ‘ভিন্ন কোনো টুর্নামেন্ট নয়; মেয়েদের প্রচলিত যে দুটি লিগ হয় (জাতীয় লিগ ও ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ) তার যে কোনো একটি আমরা আয়োজন করব। কোন লিগটা হবে সেটি নিয়ে আরও আলোচনার প্রয়োজন আছে। তবে বোর্ডে আমরা আলোচনা করছি নারী ক্রিকেট ফেরানোর। এ ব্যাপারে সবাই ইতিবাচক। নভেম্বরে মেয়েদের ঘরোয়া ক্রিকেট ফিরছে।’

বিজ্ঞাপন

তার আগেই জাতীয় দলের হেড কোচ নিয়োগ দেবে বিসিবি। সরাসরি লিগের খেলা দেখেই কোচ এগিয়ে রাখবেন জাতীয় দল গঠনের কাজ।

বিজ্ঞাপন

উইমেনস উইং প্রধান বলেন, ‘কোচ চূড়ান্ত করা নিয়ে অনেক দিন ধরেই কাজ চলছে। করোনাকালীন সময়ের কারণেই কিছুটা বিলম্ব হচ্ছে। শিগগিরই নিয়োগ চূড়ান্ত হবে। হেড কোচ ঘরোয়া লিগ দেখে যেন খেলোয়াড়দের সম্পর্কে ধারণা পান সেটি নিশ্চিত করা হবে।’

শফিউল আলম চৌধুরী আরও জানান, হোড কোচের মতামতের ভিত্তিতে নিয়োগ দেয়া হবে কোচিং স্টাফের বাকি সদস্যদের।

অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষে মার্চে মেয়েদের হেড কোচ অঞ্জু জৈনকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয় বিসিবি। কোচিং স্টাফের বাকি সদস্যদের সঙ্গেও চুক্তির মেয়াদ বাড়ায়নি বোর্ড। হেড কোচ, সহকারী কোচ, ট্রেনার, ফিজিও সবাই ছিলেন ভারতীয়।

করোনা বিরতি কাটিয়ে এ মাসে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরেছে ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মতো দল। জুলাইতে শ্রীলঙ্কায় বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব দিয়ে মাঠে ফেরার কথা ছিল বাংলাদেশের। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কারণে সেটি স্থগিত হয়ে যাওয়ায় টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের পর আর প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে নামা হয়নি সালমা-রুমানাদের। দীর্ঘ অপেক্ষার পর ঘরোয়া লিগ দিয়েই তারা পেতে যাচ্ছেন চেনা জীবনে ফেরার সুযোগ।