চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মুশফিকও মানলেন ম্যাচটা ‘ঐতিহাসিক’ ছিল

মিরপুর টেস্ট শুরুর আগে সংবাদ সম্মেলনে মুশফিকুর রহিম মজা করেই বলেছিলেন কথাটা, ‘আমরা যেখানেই খেলি, সেটাকেই আপনারা ঐতিহাসিক ম্যাচ বানিয়ে ফেলেন। ভারতে, শ্রীলঙ্কায়, দেশে যেখানেই খেলি!’

অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে টাইগার অধিনায়ক মানলেন, ম্যাচটা আসলেই ঐতিহাসিক ছিল, ‘অবশ্যই এটা অনেক বড় একটা অর্জন। এখন বলতে পারি, এই ম্যাচটা ঐতিহাসিক ছিল। আপনারা বলছিলেন, ১১ বছর পর খেলা। ম্যাচ কোনও দিন ঐতিহাসিকও হয়, ফলের কারণে হয়ত কোনও ম্যাচকে মনে রাখা যায়। এটাকে আমি অনেক বড় অর্জন বলব।’

দলের মাঝে জয়ের বিশ্বাস ছড়িয়েছে টাইগারদের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স। ঘরের মাঠে ইংল্যান্ড-বধ থেকে যার সূচনা। শ্রীলঙ্কায় শততম টেস্টে জয়। মাঝে ভারত ও নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে বুক চিতিয়ে লড়াইও আছে।

বিজ্ঞাপন

চতুর্থ দিনের শুরুতে ওয়ার্নারের সেঞ্চুরির পর অনেকটা পিছিয়ে গিয়েছিলে বাংলাদেশ। কিন্তু বিশ্বাস হারাননি সাকিব-তামিম-মুশফিকরা। যার প্রতিফলন শেষ পর্যন্ত ২০ রানের জয়। পেছনের কিছু পারফরম্যান্সও যেখানে ছায়া হয়ে বিশ্বাসী করে তুলেছিল মুশফিকবাহিনীকে।

‘আমি বলবো, আজকে ওরা একটু এগিয়ে ছিল। তারপরও উইকেটে যেমন সহায়তা ছিল স্পিনারদের জন্য, আর ওদের ওপরের দুই ব্যাটসম্যান ছাড়া অন্য যারা আছে তাদের এই ধরনের উইকেটে খেলার অভিজ্ঞতা কমই আছে; তাতে এতটুকু বিশ্বাস আমাদের ছিল। এই জয়গুলো আমাদের মতো দলকে আরও আত্মবিশ্বাসী করে তোলে। এই ধরনের অভিজ্ঞতাগুলো সব সময়ই কাজে লাগে। আবার যখন এই ধরনের পরিস্থিতিতে পড়বো, আরও ভালোভাবে সামলাতে পারবো আমরা।’

ছবি: সাকিব উল ইসলাম

বিজ্ঞাপন