চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মালালাকে হত্যার চেষ্টায় দণ্ডিত ৮ জন মুক্ত!

নোবেলজয়ী পাকিস্তানি শিক্ষাকর্মী মালালা ইউসুফ জাইকে হত্যার চেষ্টায় অভিযোগে পূর্বে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কারাদণ্ডে দণ্ডিত ১০ জনের মধ্যে ৮ জনই মুক্ত রয়েছে বলে প্রকাশ পেয়েছে। এই বিষয়টি খুবই গোপনে করা হয়েছে বলে বিবিসি প্রতিবেদনে  উঠে এসেছে।

গত এপ্রিলে পাকিস্তানের কর্মকর্তারা জানিয়েছিলো, মালালাকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে ১০ জন তালেবান যোদ্ধা দোষী সাব্যস্ত হয় এবং তাদের প্রত্যেককে ২৫ বছরের কারাদন্ড দেয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

কিন্তু একটি সূত্র বিবিসিকে নিশ্চিত করেছে যে, এই মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত ১০ জন নয়, মাত্র দুইজন।

এই বিচারকে ঘিরে একটি গোপনীয়তার আবহ সৃষ্টি করা হয়েছিলো। রুদ্ধ কক্ষে অনুষ্ঠিত এই বিচারের বৈধতা নিয়ে সন্দেহের সৃষ্টি হয়েছিলো। বিচার সম্পন্ন করার একমাসাধিককাল পরে শুক্রবারে প্রথমবারের মতো কোর্টের বিচারের রায় প্রকাশ করা হয়। যেখানে দাবি করা হয় ২০১২ সালে মালালা ইউসুফজাইকে গুলি করার অপরাধে দুইজনকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

লন্ডনে পাকিস্তানের হাই কমিশনের মুখপাত্র মুনীর আহমেদ বলেন, প্রমাণের অভাবে শুক্রবারে ৮ জনকে খালাস দেয়া হয়েছে। ভ্রান্তি সৃষ্টির জন্য ভুল প্রতিবেদন প্রকাশকে দায়ী করে মুনীর বলেন, কোর্টের বিচারের রায়ে এটা পরিষ্কার যে মাত্র দুই জনই অপরাধী।

পাকিস্তানের সোয়াত জেলা পুলিশ প্রধান সালীম মারওয়াত দুইজনকেই দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন।

৮ জনকে খালাস দেয়ার বিষয়টি প্রকাশ পায় যখন পাকিস্তানের কারাগারে মালালার হত্যা চেষ্টায় অভিযুক্ত ১০ জনের অবস্থান জানতে লন্ডন ভিত্তিক পত্রিকা ডেইলি মিররের পক্ষ থেকে উদ্যোগ নেয়া হয়।

২০১২ সালে স্কুলে যাওয়ার পথে মালালা তালেবান বন্দুকধারীদের দ্বারা হামলার শিকার হন। নারীদের শিক্ষার অধিকার নিয়ে প্রচারনা চালিয়ে মালালা তালেবানদের আক্রমণের লক্ষ্যে পরিণত হয়। তালেবান শাসনাধীন পাকিস্তানের সোয়াত উপত্যকায় বসবাস করতেন মাললা। ২০১৪ সালে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার লাব করেন মালালা।

Bellow Post-Green View