চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মহান মে দিবস আজ

শ্রমিকদের অধিকার আদায়ের অন্দোলনকে স্মরণ করে পালিত হচ্ছে মহান মে দিবস।‘শ্রমিক-মালিক ঐক্য গড়ি, সোনার বাংলা গড়ে তুলি’এই প্রতিপাদ্য নিয়ে দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রিয়ভাবে বিভিন্ন কর্মসূচি আয়োজন করা হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ এবং বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া।

বিজ্ঞাপন

রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে বলেন, বর্তমান বিশ্ব পরিবর্তনশীল এবং তীব্র প্রতিযোগিতাপূর্ণ। মুক্ত বাজার অর্থনীতিতে পরিবর্তনশীল বিশ্বে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে হলে উন্নত কর্মপরিবেশ, শ্রমিক-মালিক সুসম্পর্ক, শ্রমিকের অধিকার নিশ্চিত করাসহ বিশ্বমানের পণ্য উৎপাদনের বিকল্প নেই।

বিজ্ঞাপন

শ্রমিকদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী তার বাণীতে বলেন, সরকার বিএনপি-জামায়াত জোট আমলে বন্ধ হয়ে যাওয়া কলকারখানা চালু করেছে। পোশাক শিল্পসহ ৩৮টি শিল্পখাতের শ্রমিকদের জন্য নিম্নতর মজুরি ঘোষণা করেছে। জাতীয় শিশু শ্রমনীতি ২০১০ এবং জাতীয় শ্রমনীতি ২০১২ প্রণয়নও করেছে সরকার।

মহান মে দিবস উপলক্ষে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় দু’ দিনের-কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এর মধ্যে রয়েছে মে দিবসের শোভাযাত্রা,সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, সেমিনার, বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশনে বিশেষ অনুষ্ঠানমালা এবং দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে জাতীয় ও আঞ্চলিক পত্রিকায় ক্রোড়পত্র প্রকাশ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে রাষ্ট্রীয়ভাবে উদযাপিত মে দিবসের সকল কর্মসূচির উদ্বোধন ঘোষণা করবেন। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির ব্যবস্থাপনায়সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হবে।

১৮৮৬ সালে আমেরিকার শিকাগো শহরের হে মার্কেটে শ্র‌মিক‌দের আত্মত্যাগকে স্মরণ করে মে দিবস না‌মে প‌রি‌চিত আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস পালিত হয়ে আসছে। সেদিন দৈনিক আটঘন্টা কাজের দাবির আন্দোল‌নের পথ ধ‌রেই স্বীকৃত শ্রম অধিকার।

Bellow Post-Green View