চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মন থেকে তার জন্য ভালোবাসা

তারিক আনামের জন্মদিনে অভিনেতা সিয়াম আহমেদ

দাপুটে অভিনেতা তারিক আনাম খানের জন্মদিন মঙ্গলবার। এ উপলক্ষে নায়ক সিয়াম তার ফেসবুক আইডি ও ফ্যান পেজে এই অভিনেতাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে একটি আবেগঘন পোস্ট দিয়েছেন।  

সিয়াম তার পোস্টে জানান, তারিক আনাম খানের সঙ্গে তার সম্পর্কটা শুরুটা পথ জানা নেই নাটক করতে গিয়ে। ওই নাটকে তারিক আনাম খানের সঙ্গে ছিলেন, রিচি সোলায়মান। সিয়াম জানান, একটা নাটক করেই একজন মানুষের খুব কাছাকাছি আসা যায় না। কিন্তু একজন অভিনেতা হিসেবে আরেকজন অভিনেতার প্রতি তারিক আনাম খান যে সম্মান, অধিকারবোধ, এবং নিজের কাজের প্রতি যে যত্ন সেগুলো চোখে পড়েছে তখনই। তার মধ্যে শেখার, এবং শেখানোর ইচ্ছেটা প্রবল- এটুকু বুঝতে পেরেছিলেন।

Reneta June

সিয়াম বলেন, তারিক স্যারকে নতুনভাবে আবিষ্কার করি ‘মৃধা বনাম মৃধা’ সিনেমার শুটিংয়ের সময়। স্ক্রিপ্ট রিডিংয়ের সময় থেকেই প্রতিদিন সম্পর্কটা একটু একটু করে ঘনিষ্ঠ হয়েছে। ওই সেটে উনি ছিলেন আমার শিক্ষক। অভিনয়ের এ-বি-সি-ডি অনেক কিছুই তার কাছে শিখেছি আমি। টিমের জন্য কীভাবে নিজের সর্বোচ্চটা ঢেলে দিয়ে কাজ করা যায়, কীভাবে টিমকে সামনের দিকে এগিয়ে নেয়া যায়, সেটি আমি শিখেছি তার কাছে। শুটিংয়ের সেটে উনার থাকা মানেই একজন অভিভাবকের উপস্থিত থাকা, এই বিষয়টা আমি বারবার অনুভব করেছি।

বিজ্ঞাপন

সিয়াম আরও বলেন, সিনেমার শুটিং শেষ হতে হতে তার সাথে আমার সম্পর্কটা একটা অন্য জায়গায় চলে গেল। অন্যভাবে আমি তাকে চিনতে শুরু করলাম। উনি যখন আমাকে ফোন দেন, বা সামনাসামনি কিছু বলেন, একটা অধিকারবোধ নিয়ে তিনি সেটা বলেন। কারণ আমি তার ছেলে। তার সেই ছোট আশফাক মৃধা। আমি যখন উনাকে কিছু একটা বলি, তখনও আমার মাথায় থাকে যে উনি আশরাফ মৃধা, উনি আমার বাবা৷ এই সম্পর্কটা অনেক সুন্দর, অনেক মধুর।

‘তারিক স্যারের মতো শিল্পী আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতেই বিরল। খুবই ক্ষণজন্মা একজন শিল্পী তিনি, যিনি কিনা একইসাথে নিজের অভিনয় এবং টিমের পারফরম্যান্স- দুটোর দিকেই খেয়াল রাখেন, এবং দুটোকেই ওপরের দিকে টেনে তোলেন। তার জন্মদিনে তাকে শুভকামনা জানানো তো খুবই সাধারণ বিষয়। তবে মন থেকে তার জন্য প্রার্থনা, মন থেকে তার জন্য ভালোবাসা। তারিক স্যারের মতো একজন আর্টিস্টের সান্নিধ্য পেয়ে, তার সাথে কাজ করার সুযোগ পেয়ে এবং তার সাথে যে সম্পর্কটা এখন আমি শেয়ার করি, সেজন্য সবসময় আমি গর্বিত। আমরা তাকে মন থেকে ভালোবাসি। শুভ জন্মদিন তারিক স্যার।’

সবশেষে সিয়াম জানান, তারিক আনাম খানের সঙ্গে যারা ‘মৃধা বনাম মৃধা’ দেখেননি, তারা টফি অ্যাপে ঢুকলেই বিনামূল্যে সিনেমাটি দেখতে পারবেন। তারিক স্যার কতটা অসাধারণ অভিনেতা, সেটা তিনি ‘মৃধা বনাম মৃধা’য় আবারও প্রমাণ করেছেন। বাবা-ছেলের গল্প নিয়ে সিনেমা। যারা বাবাকে ভালোবাসেন, কিন্তু বলতে পারেন না, যেসব বাবারা তাদের স্নেহের কথা সন্তানের সামনে প্রকাশ করতে দ্বিধাবোধ করেন, কিংবা যারা নতুন বাবা হয়েছেন, তাদের খুব ভালো লাগবে সিনেমাটি। সব প্রজন্মের, সব ধরনের দর্শকের জন্য এই সিনেমা, আমাদের খুব পছন্দের একটি কাজ। তারিক স্যারের জন্মদিন উপলক্ষ্যে আপনারা দেখে নিতে পারেন এই সিনেমাটি।