চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভ্যাট আইন আগেরটাই থাকছে, আবগারি শুল্ক দেড়শ টাকা

আগামী দুই বছরের জন্য ভ্যাট আইন আগেরটাই থাকছে। আর বহুল আলোচিত ব্যাংক আমানতে ১ লাখ থেকে ৫ লাখ টাকার ওপর আবগারি শুল্ক আবগারি শুল্ক দিতে হবে দেড়শ টাকা।

জাতীয় সংসদে বাজেট অধিবেশনের সমাপনী বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, অন্তত আরো ২ বছর বিদ্যমান ভ্যাট আইন কার্যকর থাকবে। ১ লাখ থেকে ৫ লাখ টাকার ওপর আবগারী শুল্ক দিতে হবে দেড়শ টাকা।

বুধবার বাজেট আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রায় ১ ঘণ্টার সমাপনী বক্তব্যে অর্থবিলের সংশোধনী সম্পর্কে ধারণা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এদিন আলোচনার শুরুতেই সংসদে বাজেট নিয়ে বক্তব্য দেন সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদ এবং বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ।

বিজ্ঞাপন

এরপর নিজের বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী বিদেশ নির্ভরতা থেকে বেরিয়ে নিজেদের টাকায় স্বনির্ভর দেশ গড়তে মানুষের রাজস্ব দেয়ার প্রবণতার প্রশংসা করেন। তবে তা মানুষের কষ্টের বিনিময়ে নয়।

তিনি বলেন, সবার সাথে আলোচনা করেই আমরা ভ্যাট আইন পাশ করেছিলাম। এটা হয়তো অনেকে ভুলে গেছেন। নতুন ভ্যাট আইন নিয়ে নানা ধরনের কথা উঠেছে। ব্যবসায়ীরাও সাড়া দিচ্ছে না। তাই এই আইন নিয়ে বিবেচনা করা হয়েছে।

আবগারি শুল্ক প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আগে ব্যাংকে ২০ হাজার এক টাকার উপরে জমা থাকলেই আবগারি শুল্ক দেয়া লাগতো। ব্যাংকের জমা টাকার এই সীমা বাড়িয়েছেন অর্থমন্ত্রী। তিনি এক লাখ টাকা মওকুফ করেছেন। অথচ সবাই বুঝেছে উল্টোটা।

তিনি বলেন, আমি অর্থমন্ত্রীকে বলেছি, তিনি যেন ব্যাংকে গ্রাহকের জমানো এক লাখ টাকা থেকে এক কোটি টাকা পর্যন্ত অর্থের পরিমাণকে তিন ভাগে বিভক্ত করে শুল্ক নির্ধারণ করে দেন। সেক্ষেত্রে ২০ হাজার টাকা থেকে এক লাখ টাকা পর্যন্ত কোন আবগারি শুল্ক দিতে হবে না। এক লাখ টাকা থেকে পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত আবগারি শুল্ক ১৫০ টাকা। আর পাঁচ লাখ টাকা থেকে ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত আবগারি শুল্ক ৫০০ টাকা নির্ধারণের কথা বলেছি। এই ভাবে তিন ভাগে শুল্ক নির্ধারণ করা হবে। এর বিস্তারিত ব্যাখ্যা অর্থমন্ত্রী দিবেন।

বিজ্ঞাপন